মাহফুজ আনাম | The Daily Star Bangla
  • মাহফুজ আনাম

  • বঙ্গবন্ধু, দেশের মানুষই ছিল তার পৃথিবী

    সবচেয়ে অবাক করা বিষয় হচ্ছে, তিনি মাত্র ৫৫ বছর বেঁচে ছিলেন (১৯২০-১৯৭৫)। আর এই অল্প সময়ের মধ্যে তিনি এত কিছু অর্জন করেছেন। দর্শন, সাহিত্য বা বিজ্ঞানের কোনো ক্ষেত্রে তার নাম লেখা নেই। কিন্তু, তার নাম স্বর্ণাক্ষরে লেখা রয়েছে মানুষের মনে।
  • লতিফুর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি: স্বাধীন সাংবাদিকতায় তার উপহার

    একজন সম্পাদক একটি পত্রিকা পরিচালনা ও গড়ে তোলার জন্যে যেমন উদ্যোক্তার স্বপ্ন দেখেন বা প্রত্যাশা করেন, তিনি ঠিক তেমনই ছিলেন। পাশাপাশি তিনি আরও অনেক বেশি কিছু হয়ে উঠেছিলেন। সম্পাদক ও প্রকাশক হিসেবে মতিউর রহমান ও আমি যথাক্রমে দৈনিক প্রথম আলো ও দ্য ডেইলি স্টার পত্রিকা সম্পাদনা করি। এর সবই সম্ভব হয়েছে তার নীতি, সততা, সাহস, অবিচলতা ও স্বাধীন মিডিয়ার প্রতি অদম্য বিশ্বাসের কারণে। তিনি জানতেন এগুলো না থাকলে গণতন্ত্রের বিকাশ ঘটতে পারে না।
  • যে গল্পের কথা বলে আমাদের আলোকচিত্র

    গত বুধবার দ্য ডেইলি স্টারের প্রথম পাতায় একটি ছবি প্রকাশিত হয়েছে, যেখানে দেখা যাচ্ছে— চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ঢোকার পথে একটি স্ট্রেচারে মৃত অবস্থায় পড়ে আছে শাওন নামে পাঁচ বছর বয়সী এক শিশু এবং মেঝেতে হাত-পা ছড়িয়ে বিলাপ করছেন তার দাদা। ছবিটি দেশের সব বাবা-মা ও দাদা-দাদিসহ সাধারণ নাগরিকের হৃদয়ে বেদনা, ক্ষোভ আর হতাশার অনুভূতি তৈরি করবে।
  • হাসপাতাল থেকে হাসপাতাল, মর্মান্তিক-অমানবিক!

    গতকাল দ্য ডেইলি স্টারে আমরা একটি ছবি প্রকাশ করেছি ক্যাপশনে মোটামুটি বিস্তারিত লিখে। যেখানে দেখা যাচ্ছে— ২৪ বছর বয়সী অন্তঃসত্ত্বা ঝুমা শহীদ মিনারের কাছে ফুটপাতে মূর্ছা যাওয়ার মতো অবস্থায় বসে আছেন। পাশে দাঁড়িয়ে থাকা স্বামী সুজনের গায়ে হেলান দিয়ে বিশ্রাম নেওয়ার চেষ্টা করছেন।
  • অল্প কথায় সৌন্দর্য শেখানো মানুষ অধ্যাপক আনিসুজ্জামান

    আমরা তার কাছে যতটা সময় ধরে শুনতে চাইতাম তার অনেক আগেই তিনি বক্তব্য শেষ করে দিতেন। খুব অল্প কথায় তিনি যা বলতে চান তা বলে ফেলতে পারতেন। তার এই সক্ষমতা আমাদের, তার শ্রোতাদের, আরও বেশি কিছু শোনার তৃষ্ণা বাড়িয়ে দিত।
Top