জসিম আহমেদ | The Daily Star Bangla
  • Jasim Ahmed

    জসিম আহমেদ

  • রোজিনারা একা নয়

    বাংলাদেশে বিভক্ত সাংবাদিক ইউনিয়ন আছে। এর একটা অংশ সরাসরি বিএনপি কর্মী, আরেক অংশ আওয়ামী লীগের। এক অংশের নেতারা বিএনপির, আরেক অংশের নেতারা লজ্জাহীনভাবে আওয়ামী লীগের সিল পিঠে মেরেছেন। এতে তাদের গর্বিত হতেই দেখা যায়। আওয়ামী লীগের শাসনকালে যে অংশের নেতারা সরকারি দলের নেতা হিসেবে চিহ্নিত, তারা যখন-তখন প্রধানমন্ত্রী পর্যন্ত পৌঁছে যান। এদের কেউ কেউ ইউনিয়নের নেতৃত্বকে পুঁজি করে এমপি হয়েছেন। মন্ত্রী-সচিবের পদমর্যাদায় নানা সুবিধা নিয়েছেন এবং নিচ্ছেন। অতিরিক্ত ধূর্ত, চোপা-রুস্তমরা নিয়েছেন ব্যবসায়িক সুবিধা। মালিকানা পেয়েছেন রেডিও, টেলিভিশন এবং সংবাদপত্রের। প্লট, ফ্ল্যাটসহ ছোট বড় হাজারো সুবিধার কথা না বললেও চলে।
  • Cyberbullying-1.jpg

    সাইবার বুলিংয়ের শেষ কোথায়, প্রতিকার কী?

    রোববার প্রচণ্ড সাম্প্রদায়িক আক্রমণের শিকার হয়ে সোমবার একটি টেলিভিশন সাক্ষাৎকারে দেশের জনপ্রিয় অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী সংখ্যালঘু হওয়ার আক্ষেপ করেছেন। তিনি নিজেকে ধর্মীয় সংখ্যালঘু দাবি করেননি, শিল্পী হিসেবে সংখ্যালঘু বলেছেন। এও বলেছেন- তার পরিচয় তিনি মানুষ এবং শিল্পী। তিনি দুঃখ পেয়েছেন তার ওপর আসা আঘাতে সতীর্থ শিল্পী-সমাজকে পাশে না পাওয়ার জন্য। বলেছেন— তার সঙ্গে যারা কাজ করেন, তারা এই আক্রমণের প্রতিবাদ করতে এগিয়ে আসেননি। তার অভিযোগের কি সত্যতা নেই?
  • kishore

    কিশোরের ক্ষোভ, চিন্তা ও বিবেকের স্বাধীনতা

    কী এঁকেছিলেন আহমেদ কবির কিশোর? অথবা ফেসবুকে কী গুজব ছড়িয়েছিলেন এই কার্টুনিস্ট? ২০২০ সালের ৩ মে পর্যন্ত তার ফেসবুক আইডি ‘আমি কিশোর’ অ্যাক্টিভ ছিল। গত ৩ মে’র আগে কিশোর নিয়মিত পোস্ট করেছেন বিভিন্ন বিষয়ে, আপলোড করেছেন নিজের আঁকা কার্টুন। বেশিরভাগ আঁকা ছিল করোনাবিষয়ক। সেখানে তিনি যুক্ত করার চেষ্টা করেছেন ভঙ্গুর স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে। সাবজেক্ট হিসেবে বেছে নিয়েছেন গণমাধ্যমের সংবাদ ও সংবাদের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের।
  • কিংবদন্তির মৃত্যু নেই

    মিরা নায়ারের অস্কার জয়ী সিনেমা ‘সালাম বম্বে’-এর একটি মিড লং শটে ভারতের ইরফান খান রাস্তার পাশে বসে পত্রিকা পড়ছিলেন। এই সামান্য সময়ের পর্দা উপস্থিতির মাধ্যমে সিনেমায় আগমন তার। কিংবদন্তির শুরু কীভাবে হয়েছিল সেটা আর মুখ্য বিষয় থাকেনি, সুযোগ কাজে লাগিয়ে তিনি কীভাবে কিংবদন্তি হয়ে উঠেছিলেন ইতিহাসে স্থান পেয়েছে সেগুলো। যেমনটি ইরফানের পূর্বসূরি প্রতিবেশী বাংলাদেশের এ টি এম শামসুজ্জামান অভিনয় শুরু করেছিলেন পেপার বিক্রেতার সহকারী হিসেবে একটি গানে। কোনো ডায়লগও ছিল না তার অভিষেক সিনেমায়। ১৯৬৮ সালের ‘এতটুকু আশা’ সিনেমার ‘তুমি কি দেখেছো কভু জীবনের পরাজয়’ গানের একটি ক্লোজ শটে নিজের ঠোঁট কাঁপিয়ে অভিনেতা হিসেবে নিজের জাত চিনিয়েছিলেন আবু তাহের মোহাম্মদ শামসুজ্জামান থেকে এ টি এম শামসু্জামান হয়ে ওঠা কিংবদন্তি এই শিল্পী।
  • চলচ্চিত্রে অনুদান: অপচয়ের দায় কি কেবল নির্মাতার?

    নির্মাতার আগে সাংবাদিক হিসেবে নিজেকে পরিচয় দিতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করি, যেহেতু জাতীয় পত্রিকার রাজনীতি ও সংসদ বিটসহ নানা গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেত্রে কাজ করেছি বছরের পর বছর। দেশের শীর্ষস্থানীয় সংবাদপত্রে এখনো লেখালেখি করার পরও গণমাধ্যমে কর্মরত সহকর্মী ও বন্ধুরা আমাকে চলচ্চিত্র নির্মাতা হিসেবে মূল্যায়ন করতে চান।
Top