অনুশোচনায় দগ্ধ রাক্ষস! | The Daily Star Bangla
০১:৫৫ অপরাহ্ন, ডিসেম্বর ০৯, ২০১৮ / সর্বশেষ সংশোধিত: ০১:৫৯ অপরাহ্ন, ডিসেম্বর ০৯, ২০১৮

অনুশোচনায় দগ্ধ রাক্ষস!

টুকরো-টুকরো কয়েকটি গল্প, ছোট-ছোট অনেক চরিত্রের বুনন। অথচ তাদের গন্তব্য এক জায়গাতেই। অনেক চরিত্রের রং ছড়িয়ে একটি মাত্র গল্পই বলা হয়েছে ‘দহন’ ছবিটি জুড়ে। অনেক চেনা-দেখা সেই কাহিনিটি অদ্ভুত সুন্দরভাবে রূপালি পর্দার জন্য বুনেছেন পরিচালক রায়হান রাফী।

এমন একটি কাহিনি রচনা করার জন্য লেখকদের অনেক ধন্যবাদ। এমন টানটান উত্তেজনায় বোনা একটি গল্প পর্দায় তুলে আনার জন্য ছবির পরিচালককে অভিনন্দন। অনেকদিন পর এমন একটি গল্পের সন্ধান পেলো দর্শকরা।

‘দহন’ ছবির সিনেমাটোগ্রাফি, লোকেশন নির্বাচন, ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক- সবকিছু সিনেমার গল্পকে ধরে এগিয়েছে। এ বিষয়গুলোতে একটু না অনেকখানি মনোযোগী ছিলেন পরিচালক। লোকেশন নির্বাচনে মুন্সিয়ানার পরিচয় পাওয়া যায় সত্যিকারের বাস পোড়ানোর স্থান এবং দৃশ্যটি দেখেই। এসব বিষয়ে অনেকটা আন্তরিক ছিলো ‘দহন’ টিম।

একজন পরিচালক কাজে যেরকম স্বাধীনতা চান তা হয়তো এই ছবিতে তিনি পেয়েছেন। ‘আল্লাহ আল্লাহ’ গানের পরিবেশটা ছবির দৃশ্য অনুযায়ী মানানসই মনে হয়েছে। গানটির সুরকার, সংগীতপরিচালক আহমেদ হুমায়ুন প্রমাণ দিয়েছেন তার প্রতিভার।

চরিত্রের যতোটা গভীরে ঢুকলে একজন অভিনেতা চরিত্র হয়ে উঠেন- ‘দহন’ ছবির গল্পে সিয়াম তার চরিত্রের ঠিক ততোটা গভীরে ঢোকার চেষ্টা করেছেন। প্রথম দৃশ্য থেকেই দর্শকদের মনোযোগ নিজের দিকে টেনে বের করার চেষ্টা করেছেন তিনি। কখন যে সিনেমার গল্পের চরিত্র ‘তুলা’ হয়ে উঠেছেন বুঝতে দেননি। একেবারে বুঁদ করে রেখেছেন অবলীলায়। তার অভিব্যক্তি, সংলাপ, আচরণ, পোশাক তাকে ‘তুলা’ করে তুলেছে।

সিয়ামের সন্ত্রাসী সত্তা, প্রেমিক সত্তা ও অনুশোচনায় দগ্ধ সত্তার অভিনয় চোখে লেগে থাকবে বহুদিন। মুছবে না সহসায়। বাংলা চলচ্চিত্রে এমন প্রতিভাবান অভিনেতার সন্ধান মিললো অনেকদিন পর। বিশেষ করে কারাগারের দৃশ্যগুলোতে তার সংলাপ বলা ও অভিব্যক্তি দেখে প্রয়াত হুমায়ুন ফরিদীর কথা ভীষণভাবে মনে পড়ে যাচ্ছিলো। যখন সাংবাদিক চরিত্রে অভিনয়শিল্পী মমকে বলছিলেন, “আমার আশা বাঁচবে তো আপা!”- এই সংলাপে চোখ ছলছল করছিল হলের অনেকের। এখানেই সিয়ামের সার্থকতা।

পূজা চেরি তার অভিনয়ের মুগ্ধতায় বশ করেছেন দর্শকদের। পোশাকশ্রমিক আশার চরিত্রটি হয়ে উঠার আপ্রাণ চেষ্টা ছিলো তার মধ্যে। তবে সংলাপ বলাতে কিছুটা শহুরে টান খুঁজে পাওয়া গেছে। তবে অভিনয়ের কারিশমায় তা শুনতে ‘কটু’ মনে হতে দেননি তিনি। পূজা চেরির মধ্যে আগামী দিনের এক নম্বর নায়িকা হওয়ার সব সম্ভাবনা বিদ্যমান- এর প্রমাণ আরেকবার পাওয়া গেলো।

‘দহন’ ছবির প্রতিটি অভিনয়শিল্পীই চরিত্র হয়ে উঠার চেষ্টা করেছেন। জাকিয়া বারী মম, ফজলুর রহমান বাবু, মনিরা মিঠু, শিমুল খান, রীপারাজ, রাইসা, সুষমা সরকার এবং অতিথিশিল্পী রাইসুল ইসলাম আসাদ, তারিক আনাম খান, শহীদুল আলম সাচ্চু- এক কথায়, সব্বাই।

Stay updated on the go with The Daily Star Android & iOS News App. Click here to download it for your device.

Grameenphone and Robi:
Type START <space> BR and send SMS it to 2222

Banglalink:
Type START <space> BR and send SMS it to 2225

পাঠকের মন্তব্য

Top