২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৪২, শনাক্ত ২৭৪৪, পরীক্ষা ১২০৫০ | The Daily Star Bangla
০২:৩৫ অপরাহ্ন, জুলাই ২২, ২০২০ / সর্বশেষ সংশোধিত: ০২:৫৩ অপরাহ্ন, জুলাই ২২, ২০২০

করোনাভাইরাস

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৪২, শনাক্ত ২৭৪৪, পরীক্ষা ১২০৫০

স্টার অনলাইন রিপোর্ট

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন আরও ৪২ জন। এখন পর্যন্ত মারা গেছেন দুই হাজার ৭৫১ জন। একই সময়ে ১২ হাজার ৫০টি নমুনা পরীক্ষা করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরও দুই হাজার ৭৪৪ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ২২ দশমিক ৭৭ শতাংশ। এ নিয়ে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে দুই লাখ ১৩ হাজার ২৫৪ জনে দাঁড়াল।

আজ বুধবার দুপুর আড়াইটার দিকে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে অনলাইনে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দৈনন্দিন স্বাস্থ্য বুলেটিনে এ তথ্য জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় দুই হাজার ৭৪৪ জন শনাক্ত হয়েছেন। মারা গেছেন আরও ৪২ জন। তাদের মধ্যে ৩০ জন পুরুষ ও ১২ জন নারী। বয়সভিত্তিক বিশ্লেষণে তাদের মধ্যে একজনের বয়স ১১-২০ বছরের মধ্যে, একজনের বয়স ২১-৩০ বছরের মধ্যে, তিন জনের বয়স ৩১-৪০ বছরের মধ্যে, তিন জনের বয়স ৪১-৫০ বছরের মধ্যে, ১১ জনের বয়স ৫১-৬০ বছরের মধ্যে, ১৪ জনের বয়স ৬১-৭০ বছরের মধ্যে, আট জনের বয়স ৭১-৮০ বছরের মধ্যে ও একজনের বয়স ৮১-৯০ বছরের মধ্যে। দেশে এখন পর্যন্ত করোনায় মৃত্যুবরণ করেছেন দুই হাজার ৭৫১ জন।

তিনি আরও জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন আরও এক হাজার ৮০৫ জন। এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন এক লাখ ১৭ হাজার ২০২ জন। সব মিলিয়ে এ পর্যন্ত ১০ লাখ ৬৬ হাজার ৬০৯টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

স্বাস্থ্য বুলেটিনে জানানো হয়, দেশে মোট পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৯ দশমিক ৯৯ শতাংশ। আর মোট শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৫৪ দশমিক ৯৬ শতাংশ ও মৃত্যুর হার এক দশমিক ২৯ শতাংশ।

উল্লেখ্য, গত ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয় বলে জানায় সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)। আর ১৮ মার্চ প্রথম একজনের মৃত্যুর সংবাদ জানানো হয়।

Stay updated on the go with The Daily Star Android & iOS News App. Click here to download it for your device.

Grameenphone and Robi:
Type START <space> BR and send SMS it to 2222

Banglalink:
Type START <space> BR and send SMS it to 2225

পাঠকের মন্তব্য

Top