সিটি নির্বাচনে আবার জমবে রাজনীতির ভাঙা হাট! | The Daily Star Bangla
০৫:৫২ অপরাহ্ন, ডিসেম্বর ২৬, ২০১৯ / সর্বশেষ সংশোধিত: ০৫:৫৯ অপরাহ্ন, ডিসেম্বর ২৬, ২০১৯

সিটি নির্বাচনে আবার জমবে রাজনীতির ভাঙা হাট!

মহিউদ্দিন আলমগীর এবং রাশিদুল হাসান

গত বছর জাতীয় নির্বাচনের পর বাংলাদেশের রাজনীতিতে তেমনটা সরগরম না থাকলেও আসন্ন ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে ঘিরে রাজনীতির মাঠ চাঙা হয়ে উঠছে।

বর্তমান নির্বাচন কমিশনের অধীনে কোনো অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব নয় দাবি করে বিএনপি, বাম গণতান্ত্রিক জোট (এলডিএ) এবং বেশিরভাগ ইসলামপন্থী দল গত ফেব্রুয়ারিতে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন বর্জন করে। অধিকাংশ দলই ৩০ ডিসেম্বর জাতীয় নির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগ তুলে মার্চ-জুলাইয়ে উপজেলা নির্বাচনেও অংশগ্রহণ করেনি।

তবে এ দলগুলোর বেশিরভাগ আসন্ন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি) ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) নির্বাচনে অংশ নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। নির্বাচনে অংশ নেওয়াকে তারা আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকারের বিরুদ্ধে তাদের আন্দোলনের অংশ বলছে। মনোনয়ন ফরম বিক্রি কার্যক্রমকে কেন্দ্র করে প্রাণবন্ত হয়ে উঠছে এই দলগুলো। কাউন্সিলর পদ প্রত্যাশী বিএনপি প্রার্থীরা ইতিমধ্যেই মনোনয়ন ফরম কিনতে শুরু করেছেন। মেয়র পদে মনোনয়নের জন্য ফরম বিক্রি শুরু হয়েছে আজ (২৬ ডিসেম্বর) থেকে।

আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টিও গতকাল (২৫ ডিসেম্বর) থেকে ফরম বিক্রির কার্যক্রম শুরু করেছে।

মনোনয়নপত্র সংগ্রহের প্রথম দিনই আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য ফজলে নূর তাপস ও হাজী সেলিম ডিএসসিসির মেয়র পদের জন্য ফরম সংগ্রহ করেছেন। দ্বিতীয়বারের মতো ঢাকা দক্ষিণের মেয়রপ্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন বর্তমান মেয়র সাঈদ খোকন।

বামপন্থী দলগুলো জোটগতভাবে নির্বাচনে অংশ নেওয়ার ব্যাপারে এখনো সিদ্ধান্ত না জানালেও অনেকেই মনে করছেন বাম দলগুলো জোটগতভাবে নির্বাচনে অংশ নেবে না। বরং জোটে অন্তর্ভুক্ত দলগুলো আলাদা আলাদাভাবে অংশ নিতে পারে।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা গতকাল সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন প্রতিযোগিতামূলক ও অংশগ্রহণমূলক হওয়ার ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন। রাজধানীর নির্বাচন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট ভবনে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে দায়িত্বপ্রাপ্ত রিটার্নিং ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের দুই দিনব্যাপী প্রশিক্ষণের উদ্বোধনকালে তিনি নির্বাচন কর্মকর্তাদের আইন মেনে কাজ করার নির্দেশ দেন। বলেন, “আপনাদের সকল প্রার্থীর সাথে সমান ব্যবহার করতে হবে। রাজনৈতিক দলের পরিচয়ের ঊর্ধ্বে গিয়ে নিরপেক্ষভাবে দায়িত্ব পালন করতে হবে।”

ডিএনসিসি ও ডিএসসিসি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে গত ২২ ডিসেম্বর। তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ৩১ ডিসেম্বর এবং প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ৯ জানুয়ারি নির্ধারণ করা হয়। মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই করা হবে ২ জানুয়ারি।

বিএনপি

বিএনপির নেতাকর্মীরা সাধারণত দলের নয়াপল্টনের কার্যালয় থেকে দূরত্ব বজায় রেখে চলেন। পুলিশ সদস্য এবং গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের দিয়ে মোড়ানো থাকে এই এলাকা। তবে গতকাল এর ব্যতিক্রম দেখা যায়। ১৩৪ টি ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী ও তাদের সমর্থকরা মনোনয়ন ফরম সংগ্রহের জন্য অফিসে ভিড় করেন। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে আন্দোলনরত এ দলের নেতাকর্মীরা নির্বাচনী তফসিল ঘোষণার একদিন পর (২৩ ডিসেম্বর) নির্বাচনে অংশ নেয়ার সিদ্ধান্ত জানায়। বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, “আমরা স্পষ্টভাবেই বলেছি যে এই নির্বাচন কমিশন এবং সরকারের অধীনে কোনো সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে পারে না, জনগণের সিদ্ধান্ত প্রতিফলিত হবে না। তারপরেও আমরা নির্বাচনে অংশ নিচ্ছি কারণ আমরা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করি।”

ডিএনসিসির মেয়র প্রার্থী হিসাবে বিএনপির কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য তাবিথ আউয়ালের নাম আলোচনায় রয়েছে। বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আউয়াল মিন্টুর ছেলে তাবিথ ২০১৫ সালে সর্বশেষ মেয়র নির্বাচনেও প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন।

ডিএসসিসির মেয়র প্রার্থী হিসাবে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব হাবিবুন নবী খান সোহেল, দলের আন্তর্জাতিক শাখার সদস্য ইশরাক হোসেন ও জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাসের নাম আলোচনায় রয়েছে।

আফোরজা আব্বাস বিএনপি নেতা মির্জা আব্বাসের স্ত্রী এবং ইশরাক হোসেন প্রয়াত সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার ছেলে। আজও মনোনয়ন ফরম বিক্রি এবং জমাদান চলছে। ২৮ ডিসেম্বর দলটির মনোনয়ন কমিটি প্রার্থী চূড়ান্ত করবে।

আওয়ামী লীগ

গতকাল ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে ব্যাপক লোক সমাগম ঘটে। মেয়র ও ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থীরা সমর্থকসহ সেখানে মনোনয়ন ফরম কিনতে জড়ো হন। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের জন্য ডিএনসিসির বর্তমান মেয়র এম আতিকুল ইসলাম, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শহীদুল্লাহ ওসমান এবং ভাসানটেক আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ইয়াদ আল ফকির ডিএনসিসির মেয়র নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য দলের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।

অন্যদিকে, ঢাকা দক্ষিণের জন্য আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য ফজলে নূর তাপস, হাজী সেলিম, শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদের উপদেষ্টা নাজমুল হক এবং বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলের সাবেক মহাসচিব এম এ রশিদ মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। টানা দ্বিতীয়বারের মতো ঢাকা দক্ষিণের মেয়রপ্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন ডিসিসিসির বর্তমান মেয়র সাঈদ খোকন। মনোয়নপত্র সংগ্রহের পর তিনি সংবাদমাধ্যমকে গত সাড়ে চার বছরে ঢাকা শহরে ইতিবাচক পরিবর্তন হয়েছে দাবি করে বলেন, আমি অনেক কাজ করেছি। কিছু কাজ বাকি আছে। আমি যেন বাকি কাজ শেষ করে যেতে পারি।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, “আমরা বিএনপিকে স্বাগত জানাই। নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হবে এবং প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা এটিই চান।” ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি মিলনায়তনে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের এলামনাই অ্যাসোসিয়েশন আয়োজিত এক পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি। আওয়ামী লীগ আগামীকাল (২৭ ডিসেম্বর) পর্যন্ত মনোনয়ন ফরম বিক্রি করবে। পরের দিন (২৮ ডিসেম্বর) প্রার্থী চূড়ান্ত করা হবে।

জাতীয় পার্টি

মনোনয়ন ফরম বিতরণের প্রথম দিন ডিএনসিসিতে মেয়র নির্বাচনের প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য জাতীয় পার্টি থেকে ফরম সংগ্রহ করেন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব) কামরুল ইসলাম। বনানীর জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে ফরম বিতরণ করা হয়েছে। ডিএনসিসিতে ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে প্রার্থী হওয়ার জন্য আরও ৫০ জন ফরম সংগ্রহ করেছেন বলে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। আজ থেকে ডিএসসিসির নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য মনোনয়ন ফরম বিতরণ করা হবে বলে জানিয়েছেন জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যানের উপ-প্রেস সচিব দেলোয়ার জালালী। মনোনয়ন ফরম বিতরণকালে জাতীয় পার্টির প্রধান জিএম কাদের বলেন, নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে অনুষ্ঠিত হবে এমনটাই তাদের প্রত্যাশা। আগামীকাল (২৭ ডিসেম্বর) পর্যন্ত প্রত্যাশীদের কাছে মনোনয়ন ফরম বিক্রি করবে। পরের দিন (২৮ ডিসেম্বর) প্রার্থীদের সঙ্গে সাক্ষাৎ এবং চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হবে।

বাম গণতান্ত্রিক জোট (এলডিএ)

নির্বাচনে অংশ নেওয়ার প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি) একটি সূত্র।  সিপিবির ঢাকা কমিটি নগরের সাধারণ সম্পাদক ডা. সাজেদুল হক রুবেল এবং দক্ষিণে ছাত্র ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি মানবেন্দ্র দেবকে পার্টির প্রার্থী হিসেবে চূড়ান্ত করতে কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে সুপারিশ করেছে।

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের শেখ ফজলে বারী মাসুদ ডিএনসিসির মেয়র এবং আবদুর রহমান ইসলামী দল থেকে ডিএসসিসির মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন বলে জানিয়েছেন এর  প্রচার সম্পাদক শহিদুল ইসলাম কবির।

Stay updated on the go with The Daily Star Android & iOS News App. Click here to download it for your device.

Grameenphone and Robi:
Type START <space> BR and send SMS it to 2222

Banglalink:
Type START <space> BR and send SMS it to 2225

পাঠকের মন্তব্য

Top