সব সন্ত্রাসীকে আমরা রুখে দেব: অরণি | The Daily Star Bangla
০৬:৪১ অপরাহ্ন, মার্চ ১৩, ২০১৯ / সর্বশেষ সংশোধিত: ০৮:০০ অপরাহ্ন, মার্চ ১৩, ২০১৯

সব সন্ত্রাসীকে আমরা রুখে দেব: অরণি

স্টার অনলাইন রিপোর্ট

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনের পুনর্নির্বাচনের দাবিতে উপাচার্যের কাছে স্মারকলিপি পেশ করেছেন পাঁচটি প্যানেলের প্রার্থীরা। স্মারকলিপি দিতে গিয়ে উপাচার্যের কার্যালয়ের সামনে সমাবেশ করেন তারা। সেখানে স্বতন্ত্র জোটের ভিপি প্রার্থী অরণি সেমন্তি খান বলেছেন, “ভোট চোর বা সন্ত্রাসী, সবাইকে আমরা রুখে দেব।”

সমাবেশে অরণি বলেন, “আজকের দিনেই রাজু গুলি খেয়েছিল। সে কারণেই সেখানে সন্ত্রাসবিরোধী রাজু ভাস্কর্য করা হয়েছে। আমরা এখানে দাঁড়িয়ে সকল সন্ত্রাসীকে রুখে দেব। সেটা গতকালকে যারা টিএসসিতে হামলা করতে এসেছিল, ভোটের দিন ভোট চুরি করতে এসেছিল বা প্রার্থীদের ওপর হামলা করেছিল। সব সন্ত্রাসীকে আমরা রুখে দেব।”

আগামী তিনদিনের মধ্যে নতুন নির্বাচনের ঘোষণা না এলে বিশ্ববিদ্যালয় অচল করে দেওয়ার হুঁশিয়ারি দেন অরণি।

গতকাল মঙ্গলবার টিএসসিতে একটি ঘটনায় নতুন করে আলোচনায় আসেন নির্দল প্রার্থী অরণি। সেদিন বিকেলে টিএসসিতে নুরুল হক ও অন্যান্য প্যানেলের নেতা-কর্মীদের ধাওয়া দেয় ছাত্রলীগ। এক পর্যায়ে টিএসসির ভেতরে তাদের আশ্রয় নিতে দেখা যায়। এর কিছুক্ষণ পরই নাটকীয়ভাবে ভিপি হিসেবে নুরুলকে মেনে তাকে অভিনন্দন জানাতে ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন টিএসসিতে যান। পরাজয় স্বীকার করে নিয়ে নুরুলকে সর্বাত্মক সহযোগিতারও আশ্বাস দেন শোভন। কোলাকুলি করে ছবি তোলেন। এসময় সেখানে উপস্থিত অন্যদের সঙ্গে ছবি তোলার প্রসঙ্গ এলে শোভনকে সন্ত্রাসী হিসেবে উল্লেখ করে ছবি তুলতে অস্বীকৃতি জানান অরণি।

শোভনের সামনেই অরণি বলেন, “না ভাই কালকে রোকেয়া হলে এই লোক নিজে আমাদের বলছে মারধর করতে। এর সঙ্গে ছবি তুলব না। সন্ত্রাসীদের সঙ্গে ছবি তুলি না।” 

এই বক্তব্যে আশপাশে থাকা অনেকেই হাততালি দিয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন। টিএসসির অডিটোরিয়ামের ভেতরের এই ঘটনার একটি ভিডিও ক্লিপ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

এর পর থেকেই ফেসবুকে একটি দল তার চরিত্র হননের চেষ্টা চালাচ্ছে অভিযোগ করে অরণি আজ দ্য ডেইলি স্টার অনলাইনকে বলেন, শুধু আমিই নই, আমার সঙ্গে থাকা অন্য মেয়েদেরকেও ফেসবুকে মেসেজে হুমকি দেওয়া হচ্ছে। বিভিন্ন জনের ফেসবুক ওয়ালে ছবিতে ভয়ঙ্কর রকম গালাগালি করা হচ্ছে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে আজ তিন দিনের আল্টিমেটাম দিয়েছি। আমাদের আন্দোলন চলবে।

আজ বুধবার দুপুরে রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশ থেকে পাঁচ প্যানেলের প্রার্থী ও তাদের সমর্থকরা মিছিল নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের কার্যালয়ের সামনে যান। ডাকসুর নবনির্বাচিত ভিপি নুরুল হকও তাদের সঙ্গে ছিলেন। দুপুর পৌনে ১টার দিকে প্রত্যেক প্যানেলের দুজন করে প্রতিনিধি নিয়ে তারা পুনর্নির্বাচনের দাবি সম্বলিত স্মারকলিপি উপাচার্যকে দেন। সেখান থেকে বেরিয়ে প্রগতিশীল ছাত্র ঐক্য প্যানেলের ভিপি প্রার্থী লিটন নন্দী সাংবাদিকদের জানান, উপাচার্য তাদের দাবি অস্বীকার করে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অভিযোগে ক্রিমিনাল এক্টে মামলা করার হুমকি দিয়েছেন।

Stay updated on the go with The Daily Star Android & iOS News App. Click here to download it for your device.

Grameenphone and Robi:
Type START <space> BR and send SMS it to 2222

Banglalink:
Type START <space> BR and send SMS it to 2225

পাঠকের মন্তব্য

Top