কাদেরকে আজ সিঙ্গাপুরে নেওয়া হচ্ছে না | The Daily Star Bangla
০৯:৪৬ অপরাহ্ন, মার্চ ০৩, ২০১৯ / সর্বশেষ সংশোধিত: ০৫:০১ অপরাহ্ন, মার্চ ০৪, ২০১৯

কাদেরকে আজ সিঙ্গাপুরে নেওয়া হচ্ছে না

স্টার অনলাইন রিপোর্ট

সিঙ্গাপুরের ডাক্তাররা ঢাকায় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের শারীরিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ করে তাকে মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। তবে তার অবস্থা বিবেচনায় ২৪ ঘণ্টার আগে বিদেশে পাঠানো হবে না বলে জানিয়েছেন বিএসএমএমইউ কর্তৃপক্ষ।

আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতা লে. ক. (অব.) ফারুক খান দ্য ডেইলি স্টারকে বলেছেন, কাদেরের শারীরিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি হয়েছে বলে সিঙ্গাপুরের ডাক্তাররা জানিয়েছেন।

ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নিয়ে আসা সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালের এই দুই ডাক্তার আজ সন্ধ্যা ৬টা ৫২ মিনিটে শাহজালাল বিমানবন্দরে নামেন। সেখান থেকে সরাসরি তাদেরকে বিএসএমএমইউ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রীর চিকিৎসার জন্য ভারত থেকেও চিকিৎসকদের নিয়ে আসা হচ্ছে। অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় ও স্থানান্তরের মতো অবস্থায় না থাকায় বিদেশ থেকে চিকিৎসকদের আনার সিদ্ধান্ত হয়।

এদিকে রাত সাড়ে ৯টার দিকে ওবায়দুল কাদেরের শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে বিএসএমএমইউ’র উপাচার্য ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া সাংবাদিকদের ব্রিফ করেছেন। তিনি জানান, কাদেরের শারীরিক অবস্থা উন্নতির দিকে তবে ২৪ ঘণ্টা পার হওয়ার আগে তাকে স্থানান্তর করা সম্ভব নয়।

আরও পড়ুন: কাদেরের জন্য সিঙ্গাপুর, ভারত থেকে চিকিৎসক আনা হচ্ছে

রোববার ভোরে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়ার পর ওবায়দুল কাদেরকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরীক্ষা করে ডাক্তাররা তার করোনারি রক্তনালীতে তিনটি ব্লক থাকার ব্যাপারে নিশ্চিত হয়েছেন। তার হার্ট এটাক হয়েছে। তাৎক্ষণিকভাবে একটি ধমনিতে রিং বসিয়ে রক্ত চলাচলের পথ তৈরি করে দেওয়া হয়েছে। বিএসএমএমইউ’র চিকিৎসকরা বিকেলে সংবাদ সম্মেলন করে এসব কথা জানিয়ে বলেন, কাদের এখনো বিপদমুক্ত নন। আগামী ২৪-৭২ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণের পর তার অবস্থা সম্পর্কে মন্তব্য করা সম্ভব হবে।

কাদেরের ডায়াবেটিস অনিয়ন্ত্রিত অবস্থায় রয়েছে উল্লেখ করে চিকিৎসকরা জানান, এক পর্যায়ে তার হৃৎস্পন্দন কমে মিনিটে ৩৫ বার হয়ে গেলে অস্থায়ী পেসমেকার স্থাপন করা হয়। সেই সঙ্গে ইলেক্ট্রোলাইট ভারসাম্য আনার জন্যও চেষ্টা চালাতে হচ্ছে। তার ডান পাশের করোনারি রক্তনালীটি ১০০ শতাংশ বন্ধ রয়েছে। আর যে রক্তনালী দিয়ে হৃদপিণ্ডের পেশিতে রক্ত সরবরাহ হয় সেটিতে স্টেন্ট (রিং) বসিয়ে খুলে দেওয়া হয়েছে। এছাড়া তার আরেকটি করোনারি রক্তনালীতে ব্লক রয়েছে।

Stay updated on the go with The Daily Star Android & iOS News App. Click here to download it for your device.

Grameenphone and Robi:
Type START <space> BR and send SMS it to 2222

Banglalink:
Type START <space> BR and send SMS it to 2225

পাঠকের মন্তব্য

Top