বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ টি-টোয়েন্টি সিরিজ: টস জিতে ব্যাটিং নিল বাংলাদেশ
১২:০২ অপরাহ্ন, ডিসেম্বর ১৭, ২০১৮ / সর্বশেষ সংশোধিত: ০৪:১৭ অপরাহ্ন, ডিসেম্বর ২০, ২০১৮

বাংলাদেশের বিশাল হার

ক্রীড়া প্রতিবেদক

সংস্করণ যতো ছোট উইন্ডিজের শক্তি নাকি ততো সমৃদ্ধ।  আর তা যে কতটা সমৃদ্ধ হয় তা হাড়েহাড়ে টের পেয়েছে বাংলাদেশ দল।  বাংলাদেশকে রীতিমতো গুঁড়িয়ে দিয়েছে দলটি।  সোমবার সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে তিন ম্যাচের সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে আর ৮ উইকেট হাতে রেখে পেরিয়ে যায় উইন্ডিজ। চার ছক্কার ফুলঝুরি ছুটিয়ে ১৩০ রানের লক্ষ্য ৫৫ বল হাতে রেখেই পেরিয়ে যায়।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

বাংলাদেশ: ১৮.৫ ওভারে ১২৯ (তামিম ৫, লিটন ৬, সৌম্য ৫, সাকিব ৬১, মুশফিক ৫, মাহমুদউল্লাহ ১২, আরিফুল ১৭, সাইফুদ্দিন ১, মিরাজ ৮, রনি ১*, মোস্তাফিজ ০; টমাস ১/৩৩, কট্রেল ৪/২৮, পল ২/২৩, ব্র্যাথওয়েট ১/১৩, অ্যালেন ১/১৯,  পাওয়েল ০/৭)।

উইন্ডিজ: ১০.৫ ওভারে ১৩০/২  (লুইস ১৮, হোপ ৫৫,  পুরান ২৩*, পল ২৯*; সাকিব ০/৩৩, মিরাজ ০/৩৭, রনি ০/১৫, সাইফুদ্দিন ১/১৩, মোস্তাফিজ ০/১৫, মাহমুদউল্লাহ ১/১৩ )।

ফল: উইন্ডিজ ৮ উইকেটে জয়ী।

ঝড়ো গতিতে উইন্ডিজের দলীয় শতরান

লক্ষ্যটা খুব একটা বড় নয়। তারউপর মাত্র ১৯ বলেই এসেহচেন দলীয় ফিফটি এরপরেও থামেনি তাদের আগ্রাসন। ৮.১ ওভারেই (৪৯ বলে) তুলে নিয়েছে দলীয় শতরান।

হোপকে ফিরিয়ে জুটি ভাঙলেন মাহমুদউল্লাহ

দারুণ ছন্দে থাকা শেই হোপকে ফিরিয়েছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। তার বলে কভারের উপর দিয়ে ছক্কা হাঁকাতে গিয়েছিলেন হোপ। তবে এক্সট্রা কভারে মোস্তাফিজুর রহমানের হাতে ধরা পড়েছেন এ ওপেনার। তবে কাজের কাজটি এর আগেই করে গেছেন। মাত্র ২৩ বলে খেলেছেন ৫৩ রানের ইনিংস। যেখানে ৩টি চার ও ৬টি ছক্কার মার ছিল।

হোপের ঝড়ো হাফসেঞ্চুরি

দুর্দান্ত ফর্মে আছেন শেই হোপ। ওয়ানডে সিরিজে টানা দুই ম্যাচে অপরাজিত দুটি সেঞ্চুরি করেছিলেন তিনি। সে ফর্মের ধারা ধরে রাখলেন টি-টোয়েন্টি সিরিজেও। দুর্দান্ত ব্যাটিং করে মাত্র ১৬ বলেই তুলে নিয়েছেন নিজের হাফসেঞ্চুরি। ৩টি চারের সঙ্গে ৬টি ছক্কা মেরেছেন এ ওপেনার। ফলে পাওয়ার প্লে শেষ না হতেই জয় দেখছে ক্যারিবিয়ানরা।

৬ ওভার শেষে উইন্ডিজের সংগ্রহ ১ উইকেটে ৯১ রান। হোপ ৫২ ও পুরান ১৬ রানে ব্যাট করছেন। জয়ের জন্য আর দরকার মাত্র ৩৯ রান।

লুইসকে বিদায় করে জুটি ভাঙলেন সাইফউদ্দিন

সাইফউদ্দিনের প্রথম বলেই বিশাল এক ছক্কা হাঁকিয়েছিলেন এভিন লুইস। পরের বলে গেলেন আরও একটি মারতে। কিন্তু এবার মাঠ পার করতে পারেননি তিনি। লংঅনে ধরা পড়েছেন আরিফুল হকের হাতে। তাতে ভাঙে ৫১ রানের ওপেনিং জুটি। ১১ বলে ১টি করে চার ও ছক্কায় ১৮ রান করেছেন লুইস।

৪ ওভার শেষে উইন্ডিজের সংগ্রহ ১ উইকেটে ৫৮ রান। হোপ ১৮ রানে ব্যাট করছেন। নতুন ব্যাটসম্যান নিকোলাস পুরান আছেন ৫ রানে।

উইন্ডিজের উড়ন্ত সূচনা

শুরু থেকেই আগ্রাসী শেই হোপ। তার সঙ্গে যোগ দিলেন এভিন লুইসও। টি-টয়েন্টি ক্রিকেটের বিজ্ঞাপন তুলে ধরে চার ছক্কার ফুলঝুরি ছোটাচ্ছেন এ দুই ওপেনার। মাত্র ১৯ বলে (৩.১ ওভারে) দলীয় ফিফটি তুলে নিয়েছে উইন্ডিজ।

শুরুতেই আগ্রাসী উইন্ডিজ ওপেনাররা

শুরুতেই আগ্রাসী ব্যাটিংয়ে উড়ন্ত সূচনা পেয়েছে উইন্ডিজ। দুই স্পিনারকে বেদম পিটুনি দেওয়ার পর কাটার মাস্টার মস্তাফিজুর রহমানও বাদ যাচ্ছেন না। বিশেষ করে মারদাঙ্গা ব্যাটিং করছেন দুর্দান্ত ছন্দে থাকা শেই হোপ। কম যাচ্ছেননা এভিন লুইসও

২ ওভার শেষে উইন্ডিজের সংগ্রহ বিনা উইকেটে ৪৫ রান। এভিন লুইস ১২ এবং শেই হোপ ২৯ রানে ব্যাট করছেন।

দুই প্রান্তে স্পিন দিয়ে শুরু বাংলাদেশের

লক্ষ্যটা খুব বড় দিতে পারেনি বাংলাদেশ। মাত্র ১৩০ রানের। তাই নিয়ে লড়াই করতে দুই প্রান্তে স্পিন দিয়ে আক্রমণে এসেছে টাইগাররা। প্রথম ওভার করেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান নিজেই। পরের ওভারে বল হাতে তুলে দিয়েছেন মেহেদী হাসান মিরাজের হাতে।

উইন্ডিজকে ১৩০ রানের লক্ষ্য দিল বাংলাদেশ

একাই লড়াই করলেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। তাকে যোগ্য সঙ্গ দিতে পারলেন কেউই। মাঝে আরিফুল হক চেষ্টা করেছিলেন। তবে তিনিও পারলেন ইনিংস লম্বা করতে। ফলে উইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ১৩০ রানের বেশি লক্ষ্য দিতে পারেনি টাইগাররা। সবকটি উইকেট হারিয়ে ১২৯ রান করতে পেরেছে বাংলাদেশ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

বাংলাদেশ: ১৮.৫ ওভারে ১২৯ (তামিম ৫, লিটন ৬, সৌম্য ৫, সাকিব ৬১, মুশফিক ৫, মাহমুদউল্লাহ ১২, আরিফুল ১৭, সাইফউদ্দিন ১, মিরাজ ৮, রনি ১, মোস্তাফিজ ০; টমাস ১/৩৩, কট্রেল ৪/২৮, পল ২/২৩, ব্র্যাথওয়েট ১/১৩, অ্যালেন ১/১৯,  পাওয়েল ০/৭)।

পলের বলে আউট মিরাজ

জায়গায় দাঁড়িয়েই ছক্কা হাঁকাতে গিয়েছিলেন মেহেদী হাসান মিরাজ। ফলে ব্যাটের কানায় লেগে চলে যায় উইকেটরক্ষক শেই হোপের হাতে। ফলে শেষ স্বীকৃত ব্যাটসম্যানকে হারাল বাংলাদেশ। ১০ বলে ৮ রান করেছেন মিরাজ।

সাকিবের বিদায়ে বাড়ল চাপ

এক প্রান্তে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারালেও আরেক প্রান্তে দারুণ ব্যাটিং করছিলেন সাকিব আল হাসান। তবে যোগ্য সঙ্গ না পাওয়ায় শেষ দিকে রানের গতি বাড়াতে যান নিজেই। শেল্ডন কট্রেলের বলে ছক্কা হাঁকাতে গিয়ে ঠিকভাবে লাগাতে পারেননি। ব্যাটের কানায় লেগে বল উঠে যায় আকাশে। সে বল নিজেই ধরে নিয়েছেন কট্রেল। আউট হওয়ার আগে ৪৩ বলে ৮টি চার ও ২টি ছক্কায় ৬১ রান করেছেন অধিনায়ক।

খালি হাতে সাইফউদ্দিনের বিদায়

নিজের দ্বিতীয় বলেই ছক্কা হাঁকাতে গিয়েছিলেন সাইফউদ্দিন। কার্লোস ব্র্যাথওয়েটের বলে এগিয়ে এসে শট করতে গিয়ে লংঅনে ধরা পড়েছেন নিকোলাস পুরানের বলে। ২ বলে ১ রান করেছেন সাইফউদ্দিন।

১৭ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৭ উইকেটে ১১৫ রান। সাকিব ব্যাট করছেন ৫৫ রানে। নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নেমেছেন মেহেদী হাসান মিরাজ।

সাকিবের হাফসেঞ্চুরি

উইকেটে নেমেই আগ্রাসী ব্যাটিং করছেন সাকিব। তবে মাঝে উইকেটবৃষ্টির পর কিছুটা ধরে খেলেছেন তিনি। তবে ঠিকই তুলে নিয়েছেন নিজের হাফসেঞ্চুরি। ৪০ বলে ৭টি চার ও ১টি ছক্কায় নিজের ফিফটি পূরণ করেন অধিনায়ক।

১৬ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৬ উইকেটে ১১০ রান। ৫১ রানে ব্যাট করছেন সাকিব। নতুন ব্যাটসম্যান সাইফউদ্দিন আছেন ১ রানে।

অ্যালেনের বলে আউট আরিফুল

অধিনায়ক সাকিব আল হাসানকে ভালোই সঙ্গ দিচ্ছিলেন আরিফুল। তবে ইনিংস লম্বা করতে পারেননি তিনি। আউট হয়ে গেছেন ফ্যাবিয়েন অ্যালেনের বলে। স্কয়ার লেগে নিকোলাস পুরানের হাতে ধরা পড়েছেন আরিফুল। ১৮ বলে ১৭ রান করেছেন তিনি। নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নেমেছেন সাইফউদ্দিন।

বাংলাদেশের দলীয় শতরান

এক প্রান্তে নিয়মিত বিরতিতেই উইকেট পড়ছে। উইকেটে থিতু হতে পারছেন ন কোন ব্যাটসম্যানই। তবে টাইগারদের আশা ধরে রেখে দারুণ ব্যাটিং করছেন সাকিব আল হাসান। তার ব্যাটেই এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। এর মধ্যেই এসেছে দলীয় শতরান।

প্রথম ফিফটিটা খুব দ্রুত গতিতে আসলেও দ্বিতীয় ফিফটি তুলতে বেশ খরচ করতে হয়েছে টাইগারদের। ৩৩ বলে পঞ্চাশ স্পর্শ করা বাংলাদেশের শতরান এসেছে ৯১ বলে। অর্থাৎ পরের পঞ্চাশ করতে ৫৮টি বল খেলেছে টাইগাররা।

১৫ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৫ উইকেটে ১০২ রান। সাকিব ৪৪ ও আরিফুল ১৭ রানে ব্যাট করছেন।

মাহমুদউল্লাহর বিদায়ে বাড়ল চাপ

দ্রুত চার উইকেট হারিয়ে চাপে পড়া বাংলাদেশের দলের দায়িত্ব মাহমুদউল্লাহকে নিয়ে নিয়েছিলেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। তবে তাকে সঙ্গ দিতে পারেননি মাহমুদউল্লাহও। কট্রেলের তৃতীয় শিকার হয়েছেন তিনি। তার বাউন্সার ঠিকভাবে খেলতে না পারায় তালুবন্দি হন উইকেটরক্ষক শেই হোপের হাতে। রিভিউ নিয়েছিলেন মাহমুদউল্লাহ। কিন্তু লাভ হয়নি। ১৯ বলে ১২ রান করেছেন এ ব্যাটসম্যান।

১১ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৫ উইকেটে ৭৭ রান। ৩৫ রানে ব্যাট করছেন সাকিব। নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নেমেছেন আরিফুল হক।

ঝড়ো গতিতে টাইগারদের দলীয় ফিফটি

পাওয়ার প্লে শেষ না হতেই আউট হয়েছে টপ অর্ডারের চার ব্যাটসম্যান। তবে উইকেট হারালেও রানের গতিতে ভাটা পরেনি টাইগারদের। উইকেটে নেমেই মারদাঙ্গা মেজাজে ব্যাট করছেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। ফলে ৫.২ ওভারে (৩৩ বলে) এসেছে দলীয় ফিফটি।

৬ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ৫৪ রান। সাকিব ২৩ ও মাহমুদউল্লাহ ৪ রানে ব্যাট করছেন।

রানআউট মুশফিক

কিমো পলের বলটা হালকা ড্রাইভে পয়েন্টে ঠেলে দিয়েছিলেন মুশফিক। শুরুতে রান নেওয়ার ইচ্ছা না থাকলেও অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের ডাকে সাড়া দেন। কিন্তু গতিটা বেশি ছিল না। এমনকি শেষ দিকে ডাইভও দেননি। ফলে সরাসরি থ্রোতে রানআউট হন মুশফিক। ৩ বলে ৫ রান করেছেন এ উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান। নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নেমেছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

টিকলেন না সৌম্যও

দুই ওপেনারের বিদায়ের পর টিকতে পারলেন না ছন্দে থাকা সৌম্য সরকারও। শেল্ডন কেট্রলের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হয়েছেন তিনি। আগের দুই ব্যাটসম্যানের মতোই পুল করতে গিয়ে আউট হন সৌম্য। তবে তিনি মিডউইকেটে ধরা পড়েছেন রভম্যান পাওয়েলের হাতে। ৪ বলে ৫ রান করেছেন এ টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান।

৪ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ৩৫ রান। ১৫ রানে ব্যাট করছেন সাকিব আল হাসান। নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নেমেছেন মুশফিকুর রহীম।

তামিমের পর লিটনের বিদায়

শেল্ডন কট্রেলের করা আগের ওভারেই বাউন্সারে পুল করতে গিয়ে আউট হয়েছেন তামিম।শেন টমাসের করা পরের ওভারে ঠিক একই ভাবে আউট হলেন লিটন। পার্থক্য তিনি ধরা পড়েন লংঅনে। ব্র্যাথওয়েটের তালুবন্দি হওয়ার আগে ৫ বলে ৬ রান করেছেন এ ওপেনার।

৩ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২ উইকেটে ২৭ রান। সৌম্য সরকার ৪ রানের ব্যাট করছেন। নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নেমেছেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান।

শুরুতেই তামিমের বিদায়

ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই বিদায় নিয়েছেন টাইগার ওপেনার তামিম ইকবাল। শেল্ডন কট্রেলের বলে পুল করতে গিয়েছিলেন এ ওপেনার। বলে ঠিকভাবে সংযোগ ঘটাতে না পারলে উঠে যায় আকাশে। লংঅফে সহজ ক্যাচ লুফে নিয়েছেন অধিনায়ক কার্লোস ব্র্যাথওয়েট। ৭ বলে ৫ রান নিয়েছেন তামিম।

২ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ১ উইকেটে ১৯ রান। লিটন দাস ৬ রানে ব্যাট করছেন। নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নেমেছেন সৌম্য সরকার।

অপুর জায়গায় সাইফউদ্দিন

বাংলাদেশ একাদশে রেখেছে তিন পেসার। উইন্ডিজ সফরের দলে না থাকা মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন ফিরেছেন, তাকে জায়গা দিতে বাদ পড়েছেন নাজমুল ইসলাম অপু।

বাংলাদেশ একাদশ: তামিম ইকবাল, লিটন দাস, সৌম্য সরকার, মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ,  মেহেদী হাসান মিরাজ, আরিফুল হক, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন, আবু হায়দার রনি ও মোস্তাফিজুর রহমান।

উইন্ডিজ একাদশ: এভিন লুইস, শেই হোপ, ড্যারেন ব্র্যাভো, শিমরন হেটমায়ার, নিকোলাস পুরান, রভম্যান পাওয়েল, কার্লোস ব্র্যাথওয়েট, ফ্যাবিয়ান অ্যালেন, কিমো পল, শেল্ডন কর্টরেল ও ওশান টমাস।

টস জিতে ব্যাটিং নিল বাংলাদেশ

টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে টস ভাগ্যে জিতেছে বাংলাদেশ। সিলেটের মেঘাচ্ছন্ন আবহাওয়ায় বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিব আল হাসান টস জিতে আগে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

টি-টোয়েন্টিতে মুখোমুখি বাংলাদেশ-উইন্ডিজ

টেস্ট ও ওয়ানডে সিরিজ জেতার পর উইন্ডিজের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজেও জিতেই শুরু করতে চায় বাংলাদেশ। অন্যদিকে বাংলাদেশে এসে হারের বৃত্ত থেকে বেরিয়ে এবার ভিন্ন কিছুর আশা দেখছে উইন্ডিজ।

Stay updated on the go with The Daily Star Android & iOS News App. Click here to download it for your device.

Grameenphone and Robi:
Type START <space> BR and send SMS it to 2222

Banglalink:
Type START <space> BR and send SMS it to 2225

পাঠকের মন্তব্য

Top