২০১৮ বাংলাদেশ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ স্কোর | The Daily Star Bangla
১১:৪৭ পূর্বাহ্ন, ডিসেম্বর ০৯, ২০১৮ / সর্বশেষ সংশোধিত: ১০:৩৮ অপরাহ্ন, ডিসেম্বর ০৯, ২০১৮

উইন্ডিজকে সহজেই হারালো বাংলাদেশ

রামিন তালুকদার

উইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে দারুণ জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। ৫ উইকেটের সহজ জয়ে তিন ম্যাচের সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল টাইগাররা। ১৯৬ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে জয় তুলে নিয়েছে ৮৯ বল হাতে রেখেই।

তবে জয়ের ভিতটা গড়ে দিয়েছিলেন বোলাররাই। মাত্র ১৯৫ রানেই ক্যারিবিয়ানদের বেঁধে ফেলেন টাইগাররা। তার নেতৃত্ব দিয়েছিলেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা নিজেই। ৩০ রানের খরচায় নিয়েছিলেন ৩টি উইকেটে। দারুণ বোলিং করেন মোস্তাফিজুর রহমানও। তার শিকারও ৩টি।

আর ১৯৬ রানের লক্ষ্য তাড়ায় শুরু থেকেই সাবধানী ব্যাটিং টাইগারদের। মাঝে মধ্যে ধাক্কা দিয়ে ম্যাচে ফিরতে চেয়েছিলেন সফরকারীরা। তবে মুশফিকের প্রতিরোধে কুলিয়ে উঠতে পারেননি। দারুণ এক হাফসেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন মুশফিক। ৫৫ রানের ইনিংস খেলে ম্যাচ জিতিয়েই মাঠ ছেড়েছেন এ উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

উইন্ডিজ: ৫০ ওভারে ১৯৫/৯ (পাওয়েল ১০, হোপ ৪৩, ব্রাভো ১৯, স্যামুয়েলস ২৫, হেটমায়ার ৬, রভম্যান ১৪, চেজ ৩২, পল ৩৬, রোচ ৫*, বিশু ০, টমাস ০*; মিরাজ ১/৩০, সাকিব ১/৩৬, মোস্তাফিজ ৩/৩৫, মাশরাফি ৩/৩০, রুবেল ১/৬১)।

বাংলাদেশ: ৩৫.১ ওভারে ১৯৬/৫ (তামিম ১২, লিটন ৪১, ইমরুল ৪, মুশফিক ৫৫*, সাকিব ৩০, সৌম্য ১৯, মাহমুদউল্লাহ ১৪*;রোচ ০/৩৫, চেজ ২/৪৭, টমাস ১/৩৪, পল ১/৩৭, বিশু ০/৩০, রভম্যান ১/৭)। 

ফলাফল: বাংলাদেশ ৫ উইকেটে জয়ী।

ম্যান অব দ্য ম্যাচ: মাশরাফি বিন মুর্তজা।

মুশফিকের হাফসেঞ্চুরি

এক প্রান্তে আসা যাওয়ার মধ্যেই ছিলেন ব্যাটসম্যানরা। তবে অপর প্রান্তে শুরু থেকেই সাবলীল মুশফিকুর রহীম। দারুণ ব্যাটিং করে তুলে নিয়েছেন নিজের ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ৩১তম হাফসেঞ্চুরি। ৫৯ বলে ৫টি চারের সাহায্যে এ রান করেছেন তিনি।

৩২ ওভার শেষে বাংলাদেশ দলের সংগ্রহ ১৮৭ রান। মুশফিকুর রহীম ৫০ ও মাহমুদউল্লাহ ১০ রানে ব্যাট করছেন।  

সৌম্যকে ফেরালেন চেজ

প্রস্তুতি ম্যাচে দারুণ ব্যাটিং করেছিলেন সৌম্য সরকার। তুলে নিয়েছিলেন সেঞ্চুরি। তবে মূল ম্যাচে সে ধারা ধরে রাখতে ব্যর্থ হয়েছে। রোস্টন চেজের বলে ড্রাইভ করতে গিয়ে স্লিপে ক্যাচ তুলে দিয়েছেন তিনি। আর সে ক্যাচ ধরে নিতে কোন ভুল করেননি উইন্ডিজ অধিনায়ক। ১৩ বলে ২টি চার ও ১টি ছক্কায় ১৯ রান করেছেন সৌম্য।

৩০ ওভার শেষে বাংলাদেশ দলের সংগ্রহ ১৭৬ রান। ৪৮ রানে ব্যাট করছেন মুশফিকুর রহীম। নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নেমেছেন মাহমুদউল্লাহ।  

সাকিবকে ফিরিয়ে জুটি ভাঙলেন পাওয়েল

লক্ষ্য ছোট হলেও নিজের স্বাভাবিক ব্যাটিংটাই করছিলেন সাকিব আল হাসান। শুরু থেকেই আগ্রাসী এ ব্যাটসম্যান ২৬ বলের ইনিংসেই খেলেছেন ৪টি চার। আরও একটি মারতে গিয়ে আউট হয়েছেন তিনি। বল হাতে নিয়ে দলকে সাফল্য এনে দেন অধিনায়ক রভম্যান পাওয়েল। তার বলে মারতে গিয়ে ব্যাটের কানায় লেগে উইকেটরক্ষক শাই হোপের হাতে ধরা পড়েন সাকিব। ৩০ রান করেছেন এ অলরাউন্ডার।

২৭ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ১৫৩ রান। ৪০ রান নিয়ে ব্যাট করছেন মুশফিকুর রহীম। নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নেমেছেন সৌম্য সরকার। 

ঝড়ো গতিতে মুশফিক-সাকিব জুটিতে পঞ্চাশ

উইকেটে নেমেই আগ্রাসী সাকিব আল হাসান। আর সতীর্থের আক্রমণাত্মকভাবে দেখে তার সঙ্গে যোগ দিলেন মুশফিকুর রহীমও। ফলে ঝড়ো গতিতেই এসেছে এ জুটির পঞ্চাশ রান। চতুর্থ উইকেটে মাত্র ৪০ বলেই জুটির অর্ধশত পূরণ করেন এ দুই ব্যাটসম্যান।

২৫ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ১৩৯ রান। সাকিব ২৭ ও মুশফিক ৩৬ রানে ব্যাট করছেন।

বাংলাদেশের দলীয় শতরান

১৯৬ রানের লক্ষ্য তাড়ায় শতরান করে ফেলেছে বাংলাদেশ। ১২৭ বলেই আসে দলের শতরান। ৮৯ রানে লিটন আউট পর উইকেটে নেমেই বেশ হাত খুলে খেলার চেষ্টা করছেন সাকিব আল হাসান। তবে কিছুটা রয়ে সয়ে ব্যাট করছেন উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহীম।

২১ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ১০৫ রান। মুশফিক ১৯ ও সাকিব ১৩ রানে ব্যাট করছেন।

লিটনকে ফেরালেন পল

৪২ রানে ২ উইকেট হারানোর পর উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহীমকে নিয়ে দলের হাল ধরেছিলেন লিটন দাস। দারুণ ব্যাট করে ৪৭ রানের জুটিও গড়েছিলেন। নিজেও এগিয়ে যাচ্ছিলেন অর্ধশত রানের দিকে। কিন্তু বাজে শটে আউট হয়েছেন তিনি। কিমো পলের বলে জায়গায় দাঁড়িয়ে মারতে গিয়ে লাইন মিস করে বোল্ড হয়ে যান এ ওপেনার। ৫৭ বলে ৫টি চারের সাহায্যে ৪১ রান করেছেন লিটন।

১৯ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ৯৩ রান। ১৬ রানে ব্যাট করছেন মুশফিক। নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নেমেছেন সাকিব আল হাসান।

বাংলাদেশের দলীয় পঞ্চাশ

শুরুতে বেশ সাবধানী ব্যাট করেই এগিয়েছিল বাংলাদেশ। রানের গতি বাড়াতে গিয়ে জোড়া ধাক্কা খায় টাইগাররা। তামিম ইকবাল ও ইমরুল কায়েসের বিদায়ের পর মুশফিকুর রহীমকে নিয়ে দলের হাল ধরেছেন লিটন কুমার দাস। এর মধ্যেই পূরণ করেছে দলীয় পঞ্চাশ রান। ৬৮ বলে এসেছে দলীয় অর্ধশত।

১১ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২ উইকেটে ৫০ রান। লিটন ২০ ও মুশফিক ৩ রানে ব্যাট করছেন।

তামিমের পর ইমরুলের বিদায়

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দুর্দান্ত ব্যাটিং করেছিলেন ইমরুল কায়েস। কিন্তু উইন্ডিজের বিপক্ষে পুরোপুরি ব্যর্থ এ ব্যাটসম্যান। ওশেন থমাসের বলে জায়গায় দাঁড়িয়ে খেলার খেসারত দিয়েছেন তিনি। লাইন মিস করে বোল্ড হয়ে গেলেন। ২ বলে ৪ রান করেছেন এ বাঁহাতি।

৯ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২ উইকেটে ৪২ রান। ১৮ রান নিয়ে ব্যাট করছেন লিটন দাস। নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নেমেছেন উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম।

রোস্টন চেজের বলে ফিরলেন তামিম

ইনজুরি থেকে ফিরেই প্রস্তুতি ম্যাচে দারুণ এক সেঞ্চুরি করেছিলেন এই উইন্ডিজের বিপক্ষেই। কিন্তু আন্তর্জাতিক ম্যাচে ফেরাটা খুব একটা ভালো হলো না তামিম ইকবালের। রোস্টন চেজের বলে ড্রাইভ করতে গিয়ে সহজ ক্যাচ তুলে দিয়েছেন দেবেন্দ্র বিশুর হাতে। ২৪ বলে ১২ রান করেছেন তামিম।

৮ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ১ উইকেটে ৩৭ রান। লিটন দাস ১৭ রানে ব্যাট করছেন। নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নেমেছেন ইমরুল কায়েস।

নো বলে জীবন পেলেন লিটন

উৎসবের পালা শেষ উইন্ডিজের। আর লিটন কুমার দাসও হাঁটছিলেন বাউন্ডারির পথে। তার গতি রোধ করলেন আম্পায়ার। কেমার রোচের বলটি ততক্ষণে চুলচেরা বিশ্লেষণ করছেন তৃতীয় আম্পায়ার। খুব সূক্ষ্ম ব্যবধানের কারণে বলটি হলো নো। ফলে জীবন তো পেলেনই। পেলেন একটি ফ্রিহিটও। যদিও তা কাজে লাগাতে পারেননি লিটন। জীবন পাওয়ার সময় ৫ রানে ব্যাট করছিলেন এ ওপেনার।

৭ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ বিনা উইকেটে ২৬ রান। তামিম ইকবাল ১২ ও লিটন ৬ রানে ব্যাট করছেন।

টাইগারদের সাবধানী শুরু

লক্ষ্যটা খুব বড় নয়। ১৯৬ রানের। এ লক্ষ্য তাড়া করতে তাই ধীরে সুস্থেই শুরু করেছে টাইগাররা। ৫ ওভার শেষে স্কোর বোর্ডে সংগ্রহ বিনা উইকেটে ১৯ রান। ব্যাট থেকে এখনও কোন বাউন্ডারি আসেনি। ৮ রানে অপরাজিত আছেন ইনজুরি থেকে ফিরে আসা তামিম ইকবাল। আরেক ওপেনার লিটন কুমার দাস ব্যাট করছেন ৪ রানে।

১৯৬ রানের লক্ষ্য পেল বাংলাদেশ

টসটা জিতেছিলেন উইন্ডিজ অধিনায়কই। লক্ষ্য ছিল বড় সংগ্রহ তুলে টাইগারদের চাপে ফেলে দেওয়া। তবে দারুণ নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে দুইশত রানও করতে দেয়নি সফরকারীরা। ৯ উইকেটে ১৯৫ রানেই তাদের আটকে রেখেছে বাংলাদেশ। ফলে টাইগারদের লক্ষ্যটা ১৯৬ রানের।

মূলত শেষ দিকে কিমো পলের ঝড়েই দুইশতর কাছাকাছি রান পায় ক্যারিবিয়ানরা। ২৯ বলে ৩৭ রানের ইনিংস খেলেন তিনি। তাকে যোগ্য সঙ্গ দিয়েছিলেন রোস্টন চেজ। তার ব্যাট থেকে আসে ৩২ রান। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪৩ রান করেন শাই হোপ।

দারুণ বোলিং করে মাত্র ৩০ রানের খরচায় ৩টি উইকেট নিয়েছেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। ৩টি নিয়েছেন আরেক পেসার মোস্তাফিজও। ১টি করে উইকেট নেন মেহেদী হাসান মিরাজ, সাকিব আল হাসান ও রুবেল হোসেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

উইন্ডিজ: ৫০ ওভারে ১৯৫/৯ (পাওয়েল ১০, হোপ ৪৩, ব্রাভো ১৯, স্যামুয়েলস ২৫, হেটমায়ার ৬, রভম্যান ১৪, চেজ ৩২, পল ৩৬, রোচ ৫*, বিশু ০, টমাস ০*; মিরাজ ১/৩০, সাকিব ১/৩৬, মোস্তাফিজ ৩/৩৫, মাশরাফি ৩/৩০, রুবেল ১/৬১)।

শেষ ওভারে মোস্তাফিজের জোড়া আঘাত

নিজের ও ইনিংসে শেষ ওভারে জোড়া আঘাত করেছেন মোস্তাফিজুর রহমান। দ্বিতীয় বলেই বিপদজনক কিমো পলকে আউট করেন তিনি। লংঅনে মেহেদী হাসান মিরাজের দুর্দান্ত ক্যাচে আউট হন পল। মাত্র ২৮ বলে ১টি চার ও ২টি ছক্কায় ৩৬ রান করেন তিনি।

দুই বল পর ফিরিয়েছেন দেবেন্দ্র বিশুকে। মোস্তাফিজের স্লোয়ার বল ঠিকভাবে খেলতে না পেরে সরাসরি তুলে দেন বিশু। নিজেই ক্যাচ ধরেছেন মোস্তাফিজ। ১ বলে কোন রান করতে পারেননি এ ক্যারিবিয়ান।

চেজকে ফেরালেন মোস্তাফিজ

১২৭ রানে ছয় উইকেট হারিয়ে চাপে পড়া উইন্ডিজ দলের হাল কিমো পলকে নিয়ে ধরেছিলেন রোস্টন চেজ। দারুণ জুটি গড়ে দলকে এগিয়ে যাচ্ছিলেন তারা। তবে এ জুটি ভেঙেছেন মোস্তাফিজুর রহমান। তার বলে ছক্কা হাঁকাতে গিয়ে টাইমিংয়ে গল্মাল করে বল তুলে দেন আকাশে। ব্যাকওয়ার্ড পয়েন্ট সহজ ক্যাচই লুফে নিয়েছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। ৩৮ বলে ১টি চার ও ছক্কায় ৩২ রান করেছেন এ ক্যারিবিয়ান।

৪৮ ওভার শেষে উইন্ডিজের সংগ্রহ ৭ উইকেটে ১৭৯ রান। ২৫ রানে ব্যাট করছেন কিমো পল। নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নেমেছেন কেমার রোচ।

চেজ-পল জুটিতে পঞ্চাশ

দারুণ নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে উইন্ডিজকে চেপে ধরেছে স্বাগতিকরা। তবে কিমো পলকে নিয়ে প্রতিরোধ গড়ে তুলেছেন রোস্টন চেজ। এর মধ্যেই গড়েছেন ৫০ রানের জুটি। সপ্তম উইকেটে মাত্র ৪৬ বলে আসে এ জুটির পঞ্চাশ রান।

স্যামুয়েলসকে ফেরালেন রুবেল

শুরু থেকেই দারুণ বোলিং করলেও উইকেটের দেখা পাচ্ছিলেন না রুবেল হোসেন। মাঝে দুইটি ক্যাচ মিস হয়েছে তার বলে। তবে অবশেষে উইকেটের মুখ দেখেছেন তিনি। ফিরিয়েছেন বিপদজনক ব্যাটসম্যান মারলন স্যামুয়েলসকে। লংঅন দিয়ে ছক্কা মারতে গিয়ে বাউন্ডারি লাইনে লিটন দাসের ক্যাচে পরিণত হন স্যামুয়েলস। ৪৮ বলে ২৫ রান করেছেন এ ক্যারিবিয়ান।

৪০ ওভার শেষে উইন্ডিজের সংগ্রহ ৬ উইকেটে ১২৯ রান। ৬ রান নিয়ে ব্যাট করছেন রোস্টন চেজ। নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নেমেছেন কিমো পল।

রভম্যান পাওয়েলকে ফেরালেন মাশরাফি

আগেই ফিরতে পারতেন উইন্ডিজ অধিনায়ক রভম্যান পাওয়েল। মিডঅনে সহজ ক্যাচ ছেড়েছিলেন রুবেল হোসেন। তবে বড় ক্ষতি করার আগেই তাকে ফিরিয়েছেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। মিডঅফে সহজ ক্যাচ ধরে নিয়েছেন লিটন কুমার দাস। ২৫ বলে ১৪ রান করেছেন উইন্ডিজ অধিনায়ক।

৩৭ ওভার শেষে উইন্ডিজের সংগ্রহ ৫ উইকেটে ১২০ রান। ২২ রানে ব্যাট করছেন মারলন স্যামুয়েলস। নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নেমেছেন রোস্টন চেজ।

রুবেলের হাতে জীবন পেলেন উইন্ডিজ অধিনায়ক

সাকিব আল হাসানের বলে সপাটে ব্যাট চালিয়েছিলেন রভম্যান পাওয়েল। উদ্দেশ্য ছিল লংঅন সীমানা দিয়ে ছক্কা হাঁকানো। কিন্তু টাইমিংয়ে হেরফের হলে বল উঠে যায় আকাশে। দৌড়ে বল তালুবন্দি করেছিলেন রুবেল হোসেন। কিন্তু শেষ মুহূর্তে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বল হাত ফসকে গেলে জীবন পান উইন্ডিজ অধিনায়ক। এ সময় ৬ রানে ব্যাট করছেন তিনি।

৩২ ওভার শেষে উইন্ডিজের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ১০৮ রান। স্যামুয়েলস ১৮ ও পাওয়েল ৭ রানে ব্যাট করছেন।

হেটমায়ারকে ফিরিয়েছেন মিরাজ

ওপেনিংয়ে বল করার পর দ্বিতীয় স্পেলে বল হাতেই ফিরেই সাফল্য পেয়েছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। তার লেগ স্টাম্পে রাখা বলটি পেছনের পায়ে ভর করে খেলতে গিয়ে টাইমিংয়ে হের ফের করে লাইন মিস করলে বোল্ড হয়ে যান হেটমায়ার। টেস্টে দারুণ ভুগিয়েছিলেন তিনি। তবে এদিন ১৩ বলে মাত্র ৬ রান করতে পেরেছেন এ ব্যাটসম্যান।

২৯ ওভার শেষে উইন্ডিজের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ৯৪ রান। ১১ রানে ব্যাট করছেন মারলন স্যামুয়েলস। নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নেমেছেন অধিনায়ক রভম্যান পাওয়েল।

স্যামুয়েলসকে জীবন দিলেন মাহমুদউল্লাহ

শুরু থেকেই দারুণ বোলিং করছেন রুবেল হোসেন। তবে ভাগ্যটা সঙ্গে পাচ্ছেন। তার বলেই জীবন পেয়েছিলেন ড্যারেন ব্রাভো। এবার তার বলে জীবন পেলেন মারলন স্যামুয়েলস। মিডঅফে ক্যাচ লুফে নিতে পারেননি মাহমুদউল্লাহ। যদিও কিছুটা দুরূহই ছিল ক্যাচটি। লাফিয়ে উঠে হাত লাগালেও ক্যাচ লুফে নিতে পারেননি তিনি।

২৮ ওভার শেষে উইন্ডিজের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ৯৩ রান। ১১ রানে ব্যাট করছেন মারলন স্যামুয়েলস। হেটমায়ার আছেন ৬ রানে।

হোপকে ফেরালেন মাশরাফি

উইন্ডিজ শিবিরে আবারো আঘাত হেনেছেন মাশরাফি। এবার শাই হোপকে ফিরিয়েছেন তিনি। শুরু থেকেই দারুণ ব্যাটিং করছিলেন এ ওপেনার। তবে মাশরাফির বলে স্কয়ার কাট ঠিকভাবে করতে না পারায় গ্যালিতে দাঁড়ানো মেহেদী হাসান মিরাজের হাতে ধরা পড়েন তিনি। ৫৯ বলে ৩টি চারের সাহায্যে ৪৩ রান করেছেন এ ওপেনার।

২৫ ওভার শেষে উইন্ডিজের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ৭৯ রান। ৩ রানে ব্যাট করছেন মারলন স্যামুয়েলস। নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নেমেছেন শিমরন হেটমায়ার। 

ব্রাভোকে ফেরালেন মাশরাফি

দুই দুইবার জীবন পেলেন ড্যারেন ব্রাভো। প্রথমে ১৩ রানে, পড়ে ১৮ রানে। তবে তৃতীয়বারে তাকে ফিরিয়েছেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। অবশ্য তাতে দারুণ কৃতিত্ব আছে তামিম ইকবালের। ইনজুরি থেকে ফিরে আসা এ খেলোয়াড় লংঅফ থেকে অনেকটা দৌড়ে এক্সট্রা কভারে দারুণ এক ক্যাচ লুফে নিয়েছেন। ৫১ বলে ১টি চারের সাহায্যে ১৯ রান করেছেন ব্রাভো।

২১ ওভার শেষে উইন্ডিজের সংগ্রহ ২ উইকেটে ৬৬ রান। ৩৫ রানে ব্যাট করছেন শাই হোপ। নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নেমেছেন মারলন স্যামুয়েলস।

এবার ব্রাভোকে জীবন দিলেন মুশফিক

মোস্তাফিজুর রহমানের বলে ব্যাক্তিগত ১৩ রানে ড্যারেন ব্রাভোর সহজ ক্যাচ ছেড়েছিলেন আরিফুল হক। পাঁচ ওভার পর এবার রুবেল হোসেনের বলে জীবন পেলেন ব্রাভো। রুবেলের বলে খোঁচা দিতে ক্যাচ তুলে দিয়েছেন তিনি। তবে সে বল তালুবন্দি করতে পারেননি উইকেটরক্ষক মুশফিকুর রহীম। এ সময়ে ১৮ রানে ব্যাট করছিলেন ব্রাভো।

২০ ওভার শেষে উইন্ডিজের সংগ্রহ ১ উইকেটে ৬৪ রান। শাই হোপ ৩৩ এবং ড্যারেন ব্রাভো ১৯ রানে ব্যাট করছেন।

ব্রাভোকে জীবন দিলেন আরিফুল

মোস্তাফিজুর রহমানের বলে স্কয়ার কাট করতে গিয়ে গ্যালিতে সহজ ক্যাচ তুলে দিয়েছেন ড্যারেন ব্রাভো। তবে সে সুযোগ লুফে নিতে পারেননি দ্বাদশ খেলোয়াড় আরিফুল হক। তালুবন্দি করতে গেলে হাত ফসকে পড়ে যায় বল। এ সময়ে ১৩ রানে ব্যাট করছিলেন ব্রাভো।

১৬ ওভার শেষে উইন্ডিজের সংগ্রহ ১ উইকেটে ৫৬ রান। ৩০ রানে ব্যাট করছেন শাই হোপ। ড্যারেন ব্রাভো উইকেটে আছেন ১৪ রানে।

উইন্ডিজের দলীয় পঞ্চাশ

কিয়েরেন পাওয়েল বিদায় নিলে হোপের সঙ্গে দলের হাল ধরেছেন ড্যারেন ব্রাভো। এরমধ্যেই এসেছে দলীয় পঞ্চাশ রান। তবে বেশ ধীর গতিতেই এসেছে এ রান। ৮৫ বলে দলীয় অর্ধশত পূরণ করে দলটি। মাশরাফি বিন মুর্তজার কভার দিয়ে দারুণ এক চার মেরে দলের ৫০ পূরণ করেন ব্রাভো।

১৫ ওভার শেষে উইন্ডিজের সংগ্রহ ১ উইকেটে ৫৩ রান। ২৮ রানে ব্যাট করছেন শাই হোপ। ড্যারেন ব্রাভো উইকেটে আছেন ১৩ রানে।

প্রথম পাওয়ার প্লে শেষে উইন্ডিজ ৩১/১

প্রথম পাওয়ার প্লেতে কিয়েরেন পাওয়েলের উইকেট হারিয়ে ৩১ রান করেছে উইন্ডিজ। এক প্রান্তে দারুণ ব্যাট করছেন আরেক ওপেনার শাই হোপ। উইকেটে আছেন ১৭ রানে। ২ রান নিয়ে ব্যাট করছেন ড্যরানে ব্রাভো।

পাওয়েলকে ফিরিয়ে সাকিবের প্রথম আঘাত

টস জিতে ব্যাট করতে এসে ভালো শুরু পেয়েছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের দুই ওপেনার। দুই প্রান্তের দুই স্পিনারকে ভালোই খেলছিলেন তারা। তবে অষ্টম ওভারে গিয়ে ভাঙে প্রতিরোধ। সাকিব আল হাসানের বলে উড়াতে গিয়ে টপ এজ হয়ে পাওয়েলের ক্যাচ উঠে আকাশে। পয়েন্ট থেকে পেছনে সরে গিয়ে সেই ক্যাচ হাতে জমান রুবেল হোসেন। ২৭ বলে ১টি চারের সাহায্যে ১০ রান করেছেন পাওয়েল। 

৮ ওভার শেষে উইন্ডিজের সংগ্রহ ১ উইকেটে ২৯ রান। ১৭ রানে ব্যাট করছেন শাই হোপ। নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নেমেছেন ড্যারেন ব্রাভো।

দুই প্রান্তে স্পিন দিয়ে বোলিং শুরু টাইগারদের

স্পিন দিয়েই টেস্ট সিরিজে উইন্ডিজকে কাবু করেছিল টাইগাররা। সে সাফল্য গাঁথা দেখেই হয়তো ওয়ানডেতেও স্পিন দিয়ে আক্রমণ শুরু করলেন অধিনায়ক মাশরাফি। অথচ দলে রয়েছেন তিন জন পেসার। শুরুতে মেহেদী হাসান মিরাজের হাতে বল তুলে দেন। পরের ওভারে বোলিংয়ে আসেন সাকিব আল হাসান।

২ ওভার শেষে উইন্ডিজের সংগ্রহ বিনা উইকেটে ৮ রান। শাই হোপ ৬ এবং কিয়েরেন পাওয়েল ২ রানে ব্যাট করছেন।

উইন্ডিজ একাদশে দুই পরিবর্তন

ভারতে খেলা সবশেষ একাদশ থেকে দুটি পরিবর্তন এনেছে উইন্ডিজ। ইনজুরির কারণে নিয়মিত অধিনায়ক জেসন হোল্ডারের পরিবর্তন অনেকটা অনুমিতই ছিল। বাদ পড়েছেন ফ্যাবিয়েন অ্যালেন। তাদের জায়গায় একাদশে ঢুকেছেন ড্যারেন ব্রাভো ও ওশেন থমাস।

উইন্ডিজ একাদশ: কিয়েরেন পাওয়েল, শাই হোপ, ড্যারেন ব্রাভো, মারলন স্যামুয়েলস, শিমরন হেটমায়ার, রোস্টন চেজ, রভম্যান পাওয়েল, দেবেন্দ্র বিশু, কিমু পল, কেমার রোচ ও ওশেন থমাস।

বাংলাদেশের একাদশে পাঁচ পরিবর্তন

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সবশেষ ম্যাচে খেলা বাংলাদেশের একাদশ থেকে ব্যাপক পরিবর্তন এনেছে বাংলাদেশ। একাদশে ফিরেছেন দেশ সেরা দুই তারকা সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবাল। ফিরেছেন অফস্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজ ও পেসার রুবেল হোসেন ও মোস্তাফিজুর রহমান। এশিয়া কাপে আঙুলের ইনজুরিতে পড়েছিলেন তামিম। সে টুর্নামেন্টেই আঙুলের চোট বেড়ে গিয়েছিল সাকিবের। জিম্বাবুয়ে সিরিজের সময় অসুস্থ ছিলেন রুবেল। আর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে শেষ ম্যাচে বিশ্রামে মিরাজ ও মোস্তাফিজ।

স্বাভাবিকভাবেই তাই পরিবর্তন এসেছে পাঁচটি। তাদের ফেরায় দল থেকে বাদ পড়েছেন টিম কম্বিনেশনের কারণে বাদ পড়েছেন ছন্দে থাকা মোহাম্মদ মিঠুন। বাদ পড়েছেন আরিফুল হক, আবু হায়দার রনি, নাজমুল ইসলাম অপু ও সাইফউদ্দিনও। 

বাংলাদেশ একাদশ: তামিম ইকবাল, লিটন কুমার দাস, সাকিব আল হাসান, ইমরুল কায়েস, সৌম্য সরকার, মুশফিকুর রহীম, মাহমুদউল্লাহ, মেহেদী হাসান মিরাজ, মাশরাফি বিন মুর্তজা, রুবেল হোসেন ও মোস্তাফিজুর রহমান।

মাশরাফির ২০০তম আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ম্যাচ

এ ম্যাচ দিয়ে প্রথম বাংলাদেশি খেলোয়াড় হিসেবে ২০০তম আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ম্যাচ খেলার মাইলফলক স্পর্শ করছেন মাশরাফি। অধিনায়ক হিসেবে নিজের ৬৮তম ম্যাচ। তবে দেশের জার্সি গায়ে এটা তার ১৯৮তম ম্যাচ। বাকি দুইটি ম্যাচ এশিয়া একাদশের হয়ে খেলেছিলেন। মাইলফলকের এ ম্যাচ নিজের কাছে আলাদা গুরুত্ব বহন না করলেও জিততে চান অধিনায়ক।

টস হেরে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ

টেস্ট মিশন শেষ। এবার পালা ওয়ানডে সিরিজের। টেস্টের মতো এ সিরিজেও জয় চাই বাংলাদেশের। প্রথম ওয়ানডে ম্যাচের শুরুটা ভালো হয়নি টাইগারদের। টস হেরেছেন অধিনায়ক বাংলাদেশের মাশরাফি বিন মুর্তজা। টস জিতে ব্যাটিং নিয়েছেন উইন্ডিজ অধিনায়ক রভম্যান পাওয়েল। মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হবে বেলা ১টায়।

Stay updated on the go with The Daily Star Android & iOS News App. Click here to download it for your device.

Grameenphone and Robi:
Type START <space> BR and send SMS it to 2222

Banglalink:
Type START <space> BR and send SMS it to 2225

পাঠকের মন্তব্য

Top