সব দুশ্চিন্তা দেশে ফেলে গেছেন মাহমুদউল্লাহরা | The Daily Star Bangla
০৬:২৩ অপরাহ্ন, জানুয়ারি ২৩, ২০২০ / সর্বশেষ সংশোধিত: ০৬:২৬ অপরাহ্ন, জানুয়ারি ২৩, ২০২০

সব দুশ্চিন্তা দেশে ফেলে গেছেন মাহমুদউল্লাহরা

ক্রীড়া প্রতিবেদক

এক দশকেরও বেশি সময় পর ফের ক্রিকেট ফিরেছে পাকিস্তানে। কদিন শ্রীলঙ্কা সফর করে আসার পর এবার সে দেশে খেলতে গিয়েছে বাংলাদেশও। তবে নিরাপত্তাজনিত শঙ্কাটা একেবারে উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। কারণ দিন দুয়েক আগেও অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী ধরা পড়েছে লাহোরের রাস্তায়। এমন অবস্থায় পাকিস্তান সফর নিয়েও কোন দুশ্চিন্তা করছেন না টাইগার অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। সকল দুশ্চিন্তা দেশেই রেখে এসেছেন বলেছেন অধিনায়ক।

অথচ নিজেদের টিম হোটেলও এক অর্থে পরিণত হয়েছে দুর্গে। যাতায়াতের জন্য বুলেট প্রুফ বাস। সঙ্গে নিরাপত্তার বিশাল বহর। নিরাপত্তার এমন কড়াকড়ি দুর্ভাবনাটা আরও বাড়িয়ে দেওয়ার কথা। সব মিলিয়ে দম বন্ধ করা অবস্থা। এমন পরিস্থিতিতে ক্রিকেট মনোযোগ দেওয়াই কঠিন। কিন্তু মাহমুদউল্লাহ বলছেন ভিন্ন কথা, 'আমরা এটা (নিরাপত্তার শঙ্কা) বাংলাদেশেই রেখে এসেছি, যখন আমরা বিমানে উঠেছি। আমরা পাকিস্তানে মাঠের ক্রিকেটে ভালো করার চিন্তা করছি। আমরা ভালো পারফরম্যান্স উপহার দিতে চাই।'

'যখন বোর্ড থেকে সিদ্ধান্ত নেয়া হয় তারপর থেকে আমরা পরিবেশ নিয়ে চিন্তাই করছি না। আমার কাছে মনে হয় এখন ওইধরনের চিন্তা ভাবনা থেকে বেরিয়ে আসা উচিত। আমরা মনে হয় দলের প্রতিটা খেলোয়াড় ওইভাবেই চিন্তা ভাবনা করছে। আমরা শুধুমাত্র এখানে ভালো পারফরম্যান্স করার জন্য এসেছি, এবং ভালো খেলার জন্য সবাই মুখিয়ে আছি।' - নিরাপত্তার শঙ্কা প্রসঙ্গে যোগ করে আরও বললেন মাহমুদউল্লাহ।

এমন কড়া নিরাপত্তা গণ্ডির মধ্যে থাকায় একা একা কোথাও যাওয়ার উপায় নেই টাইগারদের। অধিকাংশ সময় থাকতে হচ্ছে টিম হোটেলেই। হাঁসফাঁস করা এমন অবস্থাতেও ইতিবাচক দিক দেখছেন অধিনায়ক, 'এটা একদিক থেকে ইতিবাচক হতে পারে। কারণ আপনি সতীর্থদের সঙ্গে অনেক সময় কাটাচ্ছেন। এটা আমার কাছে মনে হয় ইতিবাচকই।'

সবমিলিয়ে পাকিস্তানের নিরাপত্তা ব্যবস্থায় দারুণ খুশি মাহমুদউল্লাহ। এমনকি সেখানে তাদের আতিথেয়তায়ও মুগ্ধ টাইগার অধিনায়ক 'আমরা এই ধরনের কিছুই দেখিনি। আমি এই মুহূর্তে এটা অনেক উপভোগ করছি। নিরাপত্তার দিকে বলব পাকিস্তান আমাদের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দিচ্ছে। আমি সকল ব্যবস্থাপনা নিয়ে সন্তুষ্ট।'

এর আগে ২০০৮ সালেই দুইবার পাকিস্তান সফরে গিয়েছিলেন মাহমুদউল্লাহ। তখন মাহমুদউল্লাহর ক্যারিয়ারের শুরু। ১১ বছর পর তিনিই টাইগারদের অধিনায়ক। দীর্ঘ সময় পর আবার সে দেশটিতে যেতে পেরে দারুণ উচ্ছ্বসিত অধিনায়ক, 'ভালো লাগছে পাকিস্তানে খেলতে পেরে। আমার মনে হয় এখানে ক্রিকেট খেলার পরিবেশ খুবই ভালো। আমরা এখানে ভালো ক্রিকেট খেলতে মুখিয়ে আছি।'

উল্লেখ্য, সিরিজের প্রথম ম্যাচ আগামীকাল শুক্রবার। ম্যাচ শুরু বাংলাদেশ সময় দুপুর ৩টায়। তার দিন শনিবারই দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি। এরপর এক দিন বিশ্রাম নিয়ে সোমবার সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে দল দুটি। তিনটি ম্যাচই হবে লাহোরে।

Stay updated on the go with The Daily Star Android & iOS News App. Click here to download it for your device.

Grameenphone and Robi:
Type START <space> BR and send SMS it to 2222

Banglalink:
Type START <space> BR and send SMS it to 2225

পাঠকের মন্তব্য

Top