শ্রীলঙ্কাকে উড়িয়ে গোল্ডকাপের সেমিফাইনালে বাংলাদেশ | The Daily Star Bangla
০৭:০১ অপরাহ্ন, জানুয়ারি ১৯, ২০২০ / সর্বশেষ সংশোধিত: ০৯:২৭ অপরাহ্ন, জানুয়ারি ১৯, ২০২০

শ্রীলঙ্কাকে উড়িয়ে গোল্ডকাপের সেমিফাইনালে বাংলাদেশ

ক্রীড়া প্রতিবেদক

প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা শক্তির বিচারে বেশ পিছিয়ে থাকলেও বাঁচা-মরার ম্যাচ বলেই স্নায়ুচাপ থাকা স্বাভাবিক। বাংলাদেশের পারফরম্যান্সে অবশ্য তার ছিটেফোঁটা লক্ষণও দেখা যায়নি। চিরায়ত ছকের বাইরে বেরিয়ে আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলেছেন জেমি ডের শিষ্যরা। লঙ্কানদের উড়িয়ে তারা জায়গা করে নিয়েছেন বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের সেমিফাইনালে।

রবিবার (১৯ জানুয়ারি) ‘এ’ গ্রুপের শেষ ম্যাচে জামাল ভূঁইয়া, ইয়াসিন খানদের মতো নির্ভরযোগ্য ফুটবলারদের ছাড়াই শ্রীলঙ্কাকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে বাংলাদেশ। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে লাল-সবুজ জার্সিধারীদের হয়ে জোড়া গোল করেন স্ট্রাইকার মতিন মিয়া। বাকি গোলটি আসে লেফট উইঙ্গার মোহাম্মদ ইব্রাহিমের পা থেকে। দুজনই জাতীয় দলের হয়ে গোলের খাতা খোলেন।

টানা দুই জয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে এই গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন হিসেবে আগেই সেমিতে নাম লিখিয়েছিল ফিলিস্তিন। একটি করে জয় ও হারে ৩ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ রানার্সআপ হয়ে নকআউট পর্বে তাদের সঙ্গী হয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশও। টানা দুই হারে আসর থেকে বিদায় নিয়েছে লঙ্কানরা।

চোট-অসুস্থতায় জর্জরিত বাংলাদেশের শুরুর একাদশে এদিন চারটি পরিবর্তন আনেন কোচ ডে। বাঁ পায়ের চোটে পড়া জামাল আর ফ্লুতে আক্রান্ত ইয়াসিনের বদলে তিনি খেলান অভিষিক্ত মানিক মোল্লা আর বিশ্বনাথ ঘোষকে। একাদশে ঢোকেন রিয়াদুল ইসলাম রাফি আর মাহবুবুর রহমান সুফিলও।

আক্রমণভাগের কেন্দ্রে জুটি বাঁধেন মতিন ও সুফিল। নিজের রাইট উইং পজিশনে ফিরে যান ফিলিস্তিনের বিপক্ষে আগের ম্যাচে স্ট্রাইকার হিসেবে খেলা সাদ উদ্দিন। লেফট উইংয়ে নামেন ইব্রাহিম। খোলনলচে পাল্টে ফেলা বাংলাদেশ ম্যাচের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত খেলে দাপুটে ফুটবল।

১৭তম মিনিটে মানিকের পাস বাঁ পায়ে নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার পর ডান পায়ের শটে লক্ষ্যভেদ করেন বসুন্ধরা কিংসের মতিন। ৬৪তম মিনিটে একক প্রচেষ্টায় ব্যবধান দ্বিগুণ করেন তিনি। মাঝমাঠে শ্রীলঙ্কার ডিফেন্ডার জুদে সুপানের কাছ থেকে বল কেড়ে নিয়ে বুলেট গতিতে ডি-বক্সে ঢুকে পড়েন তিনি। এরপর আগুয়ান গোলরক্ষককে কাটিয়ে ডান পায়ের আলতো টোকায় জালের ঠিকানা খুঁজে নেন তিনি।

৮৩তম মিনিটে ইব্রাহিম গোল করলে বাংলাদেশের বড় জয় নিশ্চিত হয়ে যায়। আরেক অভিষিক্ত রাকিব হোসেনের ক্রসে গোলমুখের একদম সামনে থেকে ফাঁকা জালে বল পাঠাতে কোনো ভুল করেননি তিনি। বাংলাদেশ অবশ্য ১১ জন নিয়ে ম্যাচ শেষ করতে পারেনি। একেবারে শেষ সময়ে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন ডিফেন্ডার তপু বর্মণ।

আগামী বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) একই ভেন্যুতে ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। শিরোপার নির্ধারণী মঞ্চে জায়গা করে নিতে মতিন-ইব্রাহিমদের টপকাতে হবে ‘বি’ গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন বুরুন্ডি নামক বাধা। ম্যাচ শুরু বিকাল ৫টায়।

Stay updated on the go with The Daily Star Android & iOS News App. Click here to download it for your device.

Grameenphone and Robi:
Type START <space> BR and send SMS it to 2222

Banglalink:
Type START <space> BR and send SMS it to 2225

পাঠকের মন্তব্য

Top