পদত্যাগের সিদ্ধান্তে বোর্ড ও আমি খুশি: বার্তোমেউ | The Daily Star Bangla
০৩:৪৫ অপরাহ্ন, অক্টোবর ২৮, ২০২০ / সর্বশেষ সংশোধিত: ০৩:৪৮ অপরাহ্ন, অক্টোবর ২৮, ২০২০

পদত্যাগের সিদ্ধান্তে বোর্ড ও আমি খুশি: বার্তোমেউ

স্পোর্টস ডেস্ক

সব প্রতিকূলতা সামলে সামনে এগিয়ে যাওয়ার বার্তা দিয়েছিলেন জোসেপ মারিয়া বার্তোমেউ। কিন্তু নিজের পরিকল্পনায় এক দিনও অটল থাকতে পারেননি তিনি। স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনার সভাপতি পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন ৫৭ বছর বয়সী এই ব্যবসায়ী। অনাস্থা ভোটের আগে একরকম বাধ্য হয়ে সরে দাঁড়াতে হলেও নিজের সিদ্ধান্ত নিয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন তিনি।

মঙ্গলবার বার্তোমেউয়ের সঙ্গে বার্সেলোনা বোর্ডের বাকি পরিচালকরাও পদত্যাগ করেন। স্প্যানিশ গণমাধ্যম মার্কা জানিয়েছে, সাম্প্রতিক সময়ে বিভিন্ন ধরনের বিতর্কে জড়িয়ে কোণঠাসা হয়ে পড়া এই কর্মকর্তা সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, ‘আমরা যে সিদ্ধান্ত নিয়েছি তাতে বোর্ড ও আমি উভয়েই খুশি।’

টানা ছয় বছর বার্সার দায়িত্বে থাকা বার্তোমেউ অনেকবার পড়েছেন সমালোচনার মুখে। তবে গত চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বায়ার্ন মিউনিখের কাছে কাতালানরা ৮-২ গোলে বিধ্বস্ত হওয়ার পর এর তীব্রতা বাড়ে বহুগুণে। এক যুগে প্রথমবারের মতো শিরোপাবিহীন মৌসুম শেষ করার পাশাপাশি লিওনেল মেসির ক্লাব ছাড়ার ঘোষণা ও তা নিয়ে টানাপোড়েন, আর্থিক অস্বচ্ছলতাসহ নানান কারণে ভীষণ চাপে ছিলেন তিনি। কিন্তু কোনো কিছুতেই পিছু না হটে পদত্যাগের সিদ্ধান্তে অনড় ছিলেন বার্তোমেউ। এরপর মাঠে নামে বার্সেলোনা সমর্থকরা। তারা মেয়াদ শেষের আগেই বার্তোমেউকে সরাতে শুরু করে স্বাক্ষর সংগ্রহ। সেখানে প্রায় ২০ হাজার বার্সা সদস্য অনাস্থা ভোট আয়োজনের পক্ষে মত দেয়।

প্রাথমিক পরিকল্পনা অনুসারে, আগামী সপ্তাহে বার্তোমেউয়ের বিরুদ্ধে অনাস্থা ভোট আয়োজনের পরিকল্পনা ছিল। তবে এর আগেই পদত্যাগ করেছেন তিনি। ফলে নতুন সভাপতি নিয়োগের জন্য আগামী ৯০ দিনের মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তাছাড়া, নতুন কার্যনির্বাহী বোর্ড নিয়োগের আগে সাময়িকভাবে একটি ম্যানেজমেন্ট বোর্ড ক্লাবের সার্বিক বিষয় তত্ত্বাবধান করবে।

পদত্যাগের ঘোষণার সময়ও বেশ কিছু বিষয়ে নিজের অবস্থান জানাতে দ্বিধা করেননি বার্সার ইতিহাসের অন্যতম বিতর্কিত সভাপতি বার্তোমেউ। আগামী বছরের মার্চে নির্বাচন আয়োজনের যে সিদ্ধান্ত তিনি সম্প্রতি জানিয়েছিলেন তার ব্যাখ্যায় বলেছেন, ‘পরিবেশ শান্ত করার জন্যই আমরা মার্চ মাসে নির্বাচনের আহ্বান জানিয়েছিলাম। মার্চ মাসের নির্ধারিত নির্বাচন এবং অন্যান্য আরও কাজ শেষ হওয়ার আগেই আমাদের পদত্যাগ করার কোনো কারণ ছিল না।’

বার্সার খেলোয়াড়দের ফের বেতন কম নেওয়ার প্রস্তাব দেওয়ার বিষয়ে তিনি জানিয়েছেন, ‘আমি আশা করি, খেলোয়াড়দের বেতনে সামঞ্জস্য আনার প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন হবে। তা না হলে অত্যন্ত মারাত্মক একটি পরিস্থিতি তৈরি হবে।’

ইউরোপের শীর্ষ লিগগুলোর সেরা ক্লাবগুলো একজোট হয়ে ইউরোপিয়ান সুপার লিগের পরিকল্পনা করেছে। ক্লাব বিশ্বকাপের বিকল্প হিসেবে ভাবা হচ্ছে নতুন এ প্রতিযোগিতাটিকে। এতে অবশ্য ভিন্নমত পোষণ করেছে ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফা। তবে বার্তোমেউ বলেছেন, সরে দাঁড়ানোর আগে সুপার লিগে নাম লেখানোর সম্মতি দিয়েছেন তিনি ও তার বোর্ড, ‘ফুটবল ক্লাবগুলোকে নিয়ে ইউরোপিয়ান সুপার লিগে যোগ দিতে আমরা রাজি হয়েছি। এর গ্রহণযোগ্যতা অবশ্যই প্রতিনিধিদের পরবর্তী সমাবেশে অনুমোদিত হতে হবে। আমরা ক্লাব বিশ্বকাপের নতুন ফরম্যাটও অনুমোদন করেছি।’

Stay updated on the go with The Daily Star Android & iOS News App. Click here to download it for your device.

Grameenphone and Robi:
Type START <space> BR and send SMS it to 2222

Banglalink:
Type START <space> BR and send SMS it to 2225

পাঠকের মন্তব্য

Top