নিতিশের ব্যাটে জিতল কলকাতা, প্রথম ম্যাচে সাদামাটা সাকিব | The Daily Star Bangla
১১:৪৫ অপরাহ্ন, এপ্রিল ১১, ২০২১ / সর্বশেষ সংশোধিত: ১১:৫০ অপরাহ্ন, এপ্রিল ১১, ২০২১

নিতিশের ব্যাটে জিতল কলকাতা, প্রথম ম্যাচে সাদামাটা সাকিব

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রথম বলেই উইকেট পেয়ে গিয়েছিলেন সাকিব আল হাসান, কিন্তু এরপর তিনি থাকলেন বেশ সাদামাটা। তার বল থেকে অনায়াসে রানও বেরুলো। এর আগে ব্যাটিংয়ে শেষ দিকে নেমে কিছু করে দেখাতে পারেননি বাংলাদেশের তারকা। তবে নিজের এমন গড়পড়তা দিনেও  ঠিকই জিতেছে তার দল কলকাতা নাইট রাইডার্স।

রোববার চেন্নাইতে সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে ১০  রানে হারিয়ে আইপিএলের নতুন আসর শুরু করেছে কলকাতা।  কলকাতার ১৮৭ রান তাড়া করতে গিয়ে ১৭৭ রানে থামে সানরাইজার্স। দলকে জেতাতে সবচেয়ে বড় অবদান ওপেনার নিতিশ রানার। ৫৬ বলে ৮০ রান করেছেন তিনি। বোলিংয়ে প্রসিধ কৃষ্ণ ছিলেন সবচেয়ে সফল।

ব্যাটিংয়ে কিছু করে দেখাতে না পারলেও ইনিংসের তৃতীয় ওভারে বল করতে এসে প্রথম বলেই উইকেট পেয়ে যান সাকিব। তার প্রথম বলে স্টাম্পে টেনে বোল্ড হন ঋদ্ধিমান সাহা। ওই ওভারে মাত্র ১ রান দেন সাকিব।

পরের ওভারে অবশ্য সুবিধা করা যায়নি। জনি বেয়ারস্টো ইনসাইড আউটে তাকে হাঁকান ছক্কা, মানিষ পান্ডেও বের করেন বাউন্ডারি। আরও দুই সিঙ্গেলসহ আসে ১২ রান।

তৃতীয় ওভারেও এক ছক্কা খেয়ে দেন ১০ রান। ১৪তম ওভারের দ্বিতীয় স্পেলে শেষ ওভারটি করতে এসেও এক ছক্কায় দেন আরও ১১ রান। তার বোলিং ফিগার দাঁড়ায় ৪-০-৩৪-১।

১৮৮ রানের লক্ষ্যে শুরুতে উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়ে যায় হায়দরাবাদ। ২ উইকেট হারিয়ে পাওয়ার প্লের প্রথম ৬ ওভারে আসে কেবল ৩৫ রান। তবে বেয়ারস্টো-মানিষ মিলে তা পুষিয়ে দেন দ্রুতই। দুজনের জুটিতে আসে ৯২ রান। খেলা হায়দরাবাদের দিকেই নিয়ে যাচ্ছিলেন তারা। দোলাচলে থাকা অবস্থা থেকে কামিন্স ম্যাচে ফেরান কলকাতাকে। বিপদজনক বেয়ারস্টোকে ফিরিয়ে দেন তিনি। ৪০ বলে ৫ চার, ৩ ছক্কায় ৫৫ করে যান এই ইংলিশ। এতেই ম্যাচ হেলে পড়ে কলকাতার দিকে।  আরেকদিকে মানিষ শেষ পর্যন্ত ৪৪ বলে ৬১ করে অপরাজিত থাকলেও লাভ হয়নি। রান তাড়ার চাহিদা তিনি মেটাতে পারেননি।

ব্যাটিং অর্ডারেও গোলমাল করে ফেলে হায়দরাবাদ। আগের আসরে ঝড় তুলা আব্দুল সামাদের আগে মোহাম্মদ নবি আর বিজয় শঙ্করকে নামিয়ে বল নষ্ট করে তারা। সামাদ পরে নেমে ৮ বলেই করেন ১৯ রান। তবে ততক্ষণে দেরি হয়ে গেছে।  

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে কলকাতাকে উড়ন্ত সূচনা পাইয়ে দেন নিতিশ রানা। আরেক ওপেনার শুভমান গিল ধুঁকতে থাকেন। ১৫ রান করা গিলকে ফিরিয়ে মাঝে রানের চাকা টেনে ধরেন রশিদ খান।  নিতিশ পরে পেয়ে যান রাহুল ত্রিপাঠিকে। দুজনের উত্তাল ব্যাট রান আনতে থাকে তরতরিয়ে।

দ্বিতীয় উইকেটে এই দুজনের ব্যাটে আসে ৯৩ রানের জুটি। বড় রানের ভিত পেয়ে যায় কলকাতা। এরপরই খানিকটা ছন্দপতন। ২৯ বলে ৫৩ করা ত্রিপাঠিকে ফিরিয়ে দেন নটরাজন। পরের স্পেলে ফিরে আন্দ্রে রাসেলকে ফেরান রশিদ।  নবি পর পর দুই বলে আউট করে দেন নিতিশ আর মরগ্যানকে।

বেশ ভালোভাবেই ম্যাচে ফিরেছিল সানরাইজার্স। কিন্তু ছয় নম্বরে নামা দিনেশ কার্তিকের ঝাঁজ থামানো যায়নি। মাত্র ৯ বলে ২২ রান করেছেন তিনি। সাতে নেমে চাহিদা মেটাতে পারেননি সাকিব। ৫ বল খেলে ৩ রান করে ইনিংসের শেষ বলে ক্যাচ দেন তিনি।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

কলকাতা নাইট রাইডার্স: ২০ ওভারে ১৮৭/৬     (নিতিশ ৮০, গিল ১৫, ত্রিপাঠি ৫৩, রাসেল ৫, মরগ্যান ২, কার্তিক ২২*, সাকিব ৩ ; ভুবনেশ্বর ১/৪৫, সন্দ্বীপ ০/৩৫, নটরাজন ১/৩৭, নবি ২/৩২ , রশিদ ২/২৪, বিজয় ০/১৪)

সানরাইজার্স হায়দরাবাদ:  ২০ ওভারে ১৭৭/৫  (ঋদ্ধিমান ৭  , ওয়ার্নার ৩, মানিষ  ৬১*, বেয়ারস্টো ৫৫, নবি ১৪, বিজয় ১১, সামাদ ১৯* ; হরভজন ০/৮, প্রাসিধ ২/৩৫ , সাকিব ১/৩৪, কামিন্স ০/৩০, রাসেল ১/৩২, বরুন ০/৩৬)

 

ফল: কলকাতা নাইট রাইডার্স ১০ রানে জয়ী।

 

ম্যান অব দ্য ম্যাচ: নিতিশ রানা।

Stay updated on the go with The Daily Star Android & iOS News App. Click here to download it for your device.

Grameenphone and Robi:
Type START <space> BR and send SMS it to 2222

Banglalink:
Type START <space> BR and send SMS it to 2225

পাঠকের মন্তব্য

Top