দ্য ডেইলি স্টারের লেন্সে ২০২০ সালের দেশের ক্রীড়াঙ্গন | The Daily Star Bangla
০৯:০৪ অপরাহ্ন, ডিসেম্বর ৩০, ২০২০ / সর্বশেষ সংশোধিত: ০৯:৪৬ অপরাহ্ন, ডিসেম্বর ৩০, ২০২০

দ্য ডেইলি স্টারের লেন্সে ২০২০ সালের দেশের ক্রীড়াঙ্গন

স্পোর্টস ডেস্ক

করোনাভাইরাসের আঘাতে জর্জরিত বছরে দেশের খেলাধুলা লম্বা সময়ের জন্য ছিল স্থবিরতার গ্রাসে। তারপরও ক্যামেরাবন্দি করার মতো উদযাপনের, রোমাঞ্চের, উদ্বেগের কিংবা বিতর্কিত ঘটনার ঘাটতি পড়েনি। শেষের দুয়ারে যখন কড়া নাড়ছে ২০২০ সাল, তখন দেশের ক্রীড়ামোদীদের জন্য তুলে ধরা হলো দ্য ডেইলি স্টারের স্টাফ ফটো সাংবাদিক ফিরোজ আহমেদের তোলা সেরা আলোকচিত্রগুলো। মাঠে খেলাধুলা থাকা, না থাকা ও ফিরে আসার মুহূর্তগুলো আপন দক্ষতায় লেন্সের মাধ্যমে ফুটিয়ে তুলেছেন তিনি।

তামিমের ট্রিপল সেঞ্চুরি

বাংলাদেশের দ্বিতীয় ক্রিকেটার হিসেবে গত ফেব্রুয়ারিতে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ট্রিপল সেঞ্চুরি করেন তামিম ইকবাল। ১৩ বছর আগে রকিবুল হাসানের করা ৩১৩ রান ছাড়িয়ে ৩৩৪ রান করে দেশের হয়ে প্রথম শ্রেণিতে সর্বোচ্চ রানের ইনিংসের রেকর্ড গড়েন তিনি।

বিশ্বকাপ নিয়ে যুবাদের ঘরে ফেরা

এই দিনটির জন্য ছিল কত প্রতীক্ষা! তারুণ্যের জয়গান গেয়ে আকবর আলিরা মেটান দীর্ঘদিনের আক্ষেপ। যুব বিশ্বকাপ জিতে দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে স্বপ্নের ট্রফি নিয়ে বাংলাদেশে ফেরে অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট দল।

স্বস্তির সুবাতাস বইয়ে জয়

টানা ছয় টেস্টে নাস্তানাবুদ হওয়ার পর অবশেষে সাদা পোশাকে জয়ের দেখা পায় বাংলাদেশ। একমাত্র ম্যাচে মিরপুরে জিম্বাবুয়েকে ইনিংস ও ১০৬ রানে হারায় মুমিনুল হকের দল।

মাশরাফির নেতৃত্বের শেষ

সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে শেষবারের মতো বাংলাদেশের অধিনায়কত্ব করেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। সেদিন দারুণ এক মাইলফলকও গড়েন তিনি। বাংলাদেশের প্রথম দলনেতা হিসেবে ওয়ানডেতে জয়ের হাফসেঞ্চুরি পূরণ করেন। ৮৮ ওয়ানডেতে দলকে নেতৃত্ব দেওয়া মাশরাফির জয় ঠিক ৫০টি।

লিটন-তামিমের রেকর্ড জুটি

অধিনায়ক মাশরাফির বিদায়ী ম্যাচে লিটন দাস-তামিম ইকবাল মিলে ওপেনিং জুটিতে ৪০.৫ ওভারে যোগ করেন ২৯২ রান। বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসে ৫০ ওভারের সংস্করণে যে কোনো উইকেট এটি সবচেয়ে বেশি রানের জুটির রেকর্ড।

লিগ স্থগিত, ঘরবন্দি খেলোয়াড়রা

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে এক রাউন্ড হওয়ার পর গত মার্চে বন্ধ হয়ে যায় ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগ। প্রথমে পরবর্তী এক রাউন্ডের জন্য, আর পরে অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত করে দেওয়া হয় এই টুর্নামেন্ট। কাছাকাছি সময়ে স্থগিত হতে শুরু করে দেশের ও বিশ্বের সব পর্যায়ের ক্রীড়া আসরই।

স্বাস্থ্য সুরক্ষাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ

বৈশ্বিক মহামারির প্রাদুর্ভাবে লম্বা সময়ের জন্য স্থবির হয়ে পড়ে দেশের ক্রীড়াঙ্গন। সেসময় স্বাস্থ্য সুরক্ষার ওপর দেওয়া হয় বাড়তি জোর। কোয়ারেন্টিন, আইসোলেশন, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, জৈব সুরক্ষা বলয় প্রভৃতি হয়ে ওঠে পরিচিত শব্দ।

মিরপুর আরও সবুজ!

লকডাউনের সময়টায় দেশের স্টেডিয়ামগুলোর রক্ষণাবেক্ষণেও কিছুটা ছেদ পড়েছিল। সেই সুযোগে মিরপুরের গ্যালারিতে গজিয়ে উঠতে দেখা যায় চারা গাছ।

তবুও ক্রিকেটপ্রেম!

ধীরে ধীরে জনজীবন স্বাভাবিক হতে শুরু করার আগে ছিল অখণ্ড অবসর। খেলাপাগল শিশু-কিশোরদের জন্য যা ভীষণ কষ্টকর অভিজ্ঞতা। তাই ঘর থেকে বেরিয়ে পড়ার অবকাশ হঠাৎ মিলে গেলে মাঠের উদ্দেশেই বেরিয়ে পড়ে তারা!

অনুশীলনে খামতি নেই

অন্য সবকিছুর মতো গলফ ক্লাবগুলো বন্ধ থাকলেও অনুশীলন বন্ধ রেখে দক্ষতায় মরিচা পড়তে দিতে নারাজ ছিলেন জামাল হোসেন মোল্লা। তাই বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার একটি বালির মাঠকে অস্থায়ী অনুশীলন কেন্দ্র বানিয়ে ফেলেন দেশের দ্বিতীয় সেরা গলফার।

তায়কোয়ান্দো দিয়ে ফেরা

গত আগস্টে সরকার খেলাধুলা ফেরার অনুমতি দেয়। হাজারো শঙ্কা মাঝেও তাতে ফিরে আসে স্বস্তি। এরপর ৩ সেপ্টেম্বর আন্তঃজেলা তায়কোয়ান্দো দিয়ে পাঁচ মাসের বিরতির ইতি টেনে আনুষ্ঠানিকভাবে খেলা ফেরে দেশের মাঠে। ধারাবাহিকতা বজায় রেখে মাঠে গড়াতে থাকে অন্য খেলাও।

মা-ছেলের নজরকাড়া ক্রিকেট

রাজধানীর পল্টন ময়দানে গত সেপ্টেম্বরে মা ও ছেলের ক্রিকেট খেলার একটি দৃশ্য নজর কাড়ে সবার। বন্ধুরা কিংবা ক্লাবের ক্রিকেট প্রশিক্ষক না আসায় বোরকা পরিহিতা মাকে নিয়েই নেট প্র্যাকটিস শুরু করে দেয় শেখ সিনান (১১)।

নতুন শুরু, নতুন স্বপ্ন

ক্রীড়া কার্যক্রম সচল হতে শুরু করলে সরব হয়ে ওঠে ক্রীড়াঙ্গনও। শুরু হয় নতুন স্বপ্ন বোনা আর সেটাকে বাস্তবে রূপদানের প্রক্রিয়া। আগামী জানুয়ারির জাতীয় অ্যাথলেটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপকে সামনে রেখে যেমন কঠোর পরিশ্রম করে যাচ্ছেন বাংলাদেশ নেভির স্প্রিন্টার জহির রায়হান।

প্রেসিডেন্ট’স কাপ দিয়ে চালু ক্রিকেট

আনুষ্ঠানিকভাবে বলা হয়েছিল, ‘প্রস্তুতিমূলক টুর্নামেন্ট’। কিন্তু বোর্ডের আয়োজনে ছিল ব্যাপকতা। গত অক্টোবরে মাঠে গড়ায় প্রতিযোগিতামূলক আসর বিসিবি প্রেসিডেন্ট’স কাপ। তিন দলের আসরের শিরোপা জেতে মাহমুদউল্লাহ একাদশ।

‘মুক্ত’ সাকিব মিরপুরে

২০১৯ সালের ২৯ অক্টোবর সন্ধ্যায় সাকিব আল হাসান এসেছিলেন ‘হোম অব ক্রিকেটে’। নিজের অনেক কীর্তি গড়া এই মাঠে ফের পা রাখতে বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ককে অপেক্ষা করতে হয় ৩৭৬ দিন! আইসিসির নিষেধাজ্ঞা থেকে মুক্ত হয়ে তবেই গত ৯ নভেম্বর মিরপুরে ফেরেন তিনি।

দর্শক নিয়ে ফুটবলের প্রত্যাবর্তন

গত নভেম্বরে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে দুটি প্রীতি ম্যাচের প্রথমটিতে নেপালকে ২-০ গোলে হারায় বাংলাদেশ। বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের ধাক্কা কাটিয়ে এই ম্যাচ দিয়ে ঘরোয়া ফুটবলের আগেই আন্তর্জাতিক ফুটবলে ফেরে দল। কিন্তু গ্যালারিতে পরিকল্পনার চেয়ে বেশি দর্শক হওয়ায় আয়োজন ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা রক্ষার প্রসঙ্গে বেশ সমালোচনা সইতে হয় বাফুফে।

জামালের সঙ্গে সেলফি তুলতে…

বাংলাদেশ-নেপালের দ্বিতীয় ম্যাচে ঘটে একটি অঘটন। মাঠের নিরাপত্তা ব্যবস্থাকে প্রশ্নের মুখে ফেলেন এক দর্শক। গ্যালারি থেকে ছুটে বেরিয়ে মাঠে ঢুকে বাংলাদেশের অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়ার সঙ্গে সেলফি তোলেন তিনি। পরে অবশ্য ওই দর্শককে বের করে নিয়ে যান মাঠের নিরাপত্তাকর্মীরা।

সতীর্থকে মারতে উদ্যত মুশফিক, জোটে শাস্তি

চলতি ডিসেম্বরে বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের এলিমিনেটর ম্যাচে ঘটে নজিরবিহীন এক ঘটনা। সতীর্থ নাসুম আহমেদের দিকে দুবার বল নিয়ে তেড়ে যান মুশফিকুর রহিম। আবেগ নিয়ন্ত্রণ করতে ব্যর্থ হয়ে মারতে উদ্যত হন মাঠের মধ্যেই! অসম্মানজনক এমন আচরণের দায়ে পরে মুশফিককে শাস্তি দেয় বিসিবি।

Stay updated on the go with The Daily Star Android & iOS News App. Click here to download it for your device.

Grameenphone and Robi:
Type START <space> BR and send SMS it to 2222

Banglalink:
Type START <space> BR and send SMS it to 2225

পাঠকের মন্তব্য

Top