দুই দিন খেলেই হারের শঙ্কা | The Daily Star Bangla
১১:৩৮ পূর্বাহ্ন, মার্চ ১১, ২০১৯ / সর্বশেষ সংশোধিত: ১১:৪১ পূর্বাহ্ন, মার্চ ১১, ২০১৯

দুই দিন খেলেই হারের শঙ্কা

ক্রীড়া প্রতিবেদক

বৃষ্টির কারণে প্রথম দুদিন এক বলও হয়নি, কিন্তু বাকি দুদিনেই ওয়েলিংটন টেস্টে হারতে বসেছে বাংলাদেশ। শেষ দিনে হার এড়াতে হাতে থাকা ৭ উইকেট নিয়ে কঠিন চ্যালেঞ্জ বাংলাদেশের সামনে। 

আগের দিন দারুণ বল করেছিলেন দুই পেসার। এদিনও আবু জায়েদ রাহি শুরুতে কাঁপিয়ে দিলেন কিউইদের। কিন্তু তার তিন বলের রস টেইলরের দুই ক্যাচ পড়ার পর টেইলর থামলেন দুইশো করে, নিউজিল্যান্ডের লিডও ছাড়ালো দুইশো। দ্বিতীয় ইনিংসে তিন উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশ এরমধ্যেই পড়েছে হারের শঙ্কায়।

ওয়েলিংটনে চতুর্থ দিনের খেলা শেষে দ্বিতীয় ইনিংসে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ৮০ রান। মোহাম্মদ মিঠুন অপরাজিত আছেন ২৫ রানে, সঙ্গী সৌম্য সরকারের রান ১১। নিউজিল্যান্ডের করা ৬ উইকেটে ৪৩২ রানের জবাবে এখনো ১৪১ রানে পিছিয়ে মাহমুদউল্লাহর দল। 

দিনের শুরুর আধঘন্টা যেমন ছিল, পুরো দিনের সঙ্গে তা যেন এখন বেশ খাপছাড়া। আগের দিনের মতই স্যুয়িং নিয়ে কিউইদের উপর চেপে বসেছিলেন রাহি। তার বলে ২০ রানে থাকা টেইলর প্রথমে শর্ট কাভারে ক্যাচ উঠিয়েছিলেন। তা নিতে পারেননি মাহমুদউল্লাহ। এর এক বল পরেই দ্বিতীয় স্লিপে টেইলরের ক্যাচ ফেলে দেন সাদমান ইসলাম। ওই ওভারে শেষ বলেও কোনমতে বেঁচেছিলেন বারবার পরাস্ত হওয়া এই ব্যাটসম্যান। 

শুরুর এই জড়তা সময়ের সঙ্গেই কেটে যায় তার। ধীরে ধীরে মেলতে থাকেন ডানা, বাড়াতে থাকেন রান। চার-ছয়ে দ্রুত রান বাড়িয়ে বাংলাদেশকে রাখেন ব্যস্ত। 

তৃতীয় উইকেটে উইলিয়ামসনের সঙ্গে তার ১৭২ রানের জুটিতেই সর্বনাশ হয়ে যায় বাংলাদেশের। ৭৪ করা উইলিয়ামসনকে ফিরিয়ে তাইজুল ইসলাম সে জুটি ভাঙলেও হেনরি নিকোলাসের সঙ্গে জমে যায় টেইলরের আরেক জুটি। চতুর্থ উইকেটে ২১৬ রানের জুটিতে বাংলাদেশের হতাশা কয়েকগুণ বাড়ান দুজন। বড় জুটিতে তারা রানও তুলেছেন দ্রুতলয়ে। ২০০ রান করে টেইলর আর ১০৭ রান করে নিকোলাস আউট হওয়ার পর আর বেশিক্ষণ ব্যাট না করে ইনিংস ছেড়ে দেয় কিউইরা। 

২২১ রানে পিছিয়ে দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুতেই তামিম ইকবালকে হারায় বাংলাদেশ। দুই টেস্টেই দারুণ খেলা তামিম এবার ট্রেন্ট বোল্টের ইনস্যুয়িং বুঝতে না পেরে  ৪ রান করে বোল্ড হন। ওয়ানডাউনে নামা মুমিনুল হক বিদেশের মাঠে তার রান খরা অব্যাহত রেখে বোল্টকে স্লিপে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন। আরেক ওপেনার সাদমান টিকেছিলেন বেশিকিছুক্ষণ। তবে ম্যাট হেনরির বাউন্সার পুল করতে গিয়ে আনেন বিপদ। 

৫৫ রানে ৩ উইকেট হারানোর পর আর কোন বিপর্যয় হতে দেননি মিঠুন আর সৌম্য। শেষ দিনে হাতে ৭ উইকেট নিয়ে বাংলাদেশের সামনে চ্যালেঞ্জ কঠিন উইকেটে পুরো দিন ব্যাট করার। এখনো ১৪১ রানে এগিয়ে থাকা স্বাগতিকরা তাই ম্যাচের লাগাম অনেকটাই নিজেদের কাছে নিয়ে নিয়েছে। 

সংক্ষিপ্ত স্কোর: 

(চতুর্থ দিন শেষে)

বাংলাদেশ প্রথম ইনিংস:
২১১

নিউজিল্যান্ড প্রথম ইনিংস: ৮৪.৫ ওভারে ৪৩২/৬ (আগের দিন ৩৮/২) (উইলিয়ামসন ৭৪, টেইলর ২০০, নিকোলস ১০৭, গ্র্যান্ডহোম ২৩*, ওয়েটলিং ৮; জায়েদ ৩/৯৪, ইবাদিত ০/৮৪, মোস্তাফিজ ১/৭৪, সৌম্য ০/৩৫,  তাইজুল ২/৯৯, মুমিনুল ০/৪১)

নিউজিল্যান্ডের লিড- ২২১ রান

বাংলাদেশ দ্বিতীয় ইনিংস:  ২৩ ওভারে ৮০/৩  (তামিম ৪, সাদমান ২৯, মুমিনুল ১০, মিঠুন ২৫*, সৌম্য ১২*  ; বোল্ট ২/৩৪, সাউদি ০/১৮, হেনরি ১/১৭, গ্র্যান্ডহোম ০/৩, ওয়েগনার ০/৮) 

Stay updated on the go with The Daily Star Android & iOS News App. Click here to download it for your device.

Grameenphone and Robi:
Type START <space> BR and send SMS it to 2222

Banglalink:
Type START <space> BR and send SMS it to 2225

পাঠকের মন্তব্য

Top