রাজার প্রশ্ন, খেলার সরঞ্জাম পুড়িয়ে চাকরিতে আবেদন করব? | The Daily Star Bangla
০৪:২৫ অপরাহ্ন, জুলাই ১৯, ২০১৯ / সর্বশেষ সংশোধিত: ০৪:৫৯ অপরাহ্ন, জুলাই ১৯, ২০১৯

রাজার প্রশ্ন, খেলার সরঞ্জাম পুড়িয়ে চাকরিতে আবেদন করব?

স্পোর্টস ডেস্ক

আইসিসি জিম্বাবুয়ের সদস্য পদ স্থগিত করায় ক্রিকেট ক্যারিয়ার শেষ হয়ে যাওয়ার শঙ্কা চেপে ধরেছে দেশটির অনেক খেলোয়াড়কে। এমন সিদ্ধান্তে হতাশ, নিরাশ হওয়ার পাশাপাশি হৃদয়ভাঙার যন্ত্রণা ভোগ করতে শুরু করেছেন দলটির অন্যতম তারকা সিকান্দার রাজা। ভবিষ্যৎ নিয়ে অকূল পাথারে পড়ে যাওয়া এই অলরাউন্ডার প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়েছেন, ‘আমরা কি খেলার সরঞ্জাম পুড়িয়ে ফেলব আর চাকরিতে আবেদন করব?’

ক্রিকেট বোর্ডে সরকারের হস্তক্ষেপের কারণে বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) লন্ডনে আইসিসির সভায় সর্বসম্মতিক্রমে জিম্বাবুয়ের সদস্য পদ স্থগিতের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এর ফলে দলটিকে আইসিসি যে অনুদান দিত, তা স্থগিত থাকবে। আর আইসিসি যে সব প্রতিযোগিতা আয়োজন করে থাকে, সেখানে জিম্বাবুয়ের কোনো দল অংশ নিতে পারবে না।

আইসিসি নির্দেশনা দিয়েছে, আগামী তিন মাসের মধ্যে নির্বাচিত জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট বোর্ডকে তারা দায়িত্বে দেখতে চায়। এই বিষয়ে অগ্রগতি নিয়ে আগামী অক্টোবরের সভায় তারা আলোচনা করবে।

আগামী আগস্টে অনুষ্ঠিত হবে নারী টো-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব। এরপর অক্টোবরে টো-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব। কিন্তু সদস্য পদ স্থগিত হওয়ায় এই দুটি আইসিসি প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের পথ বন্ধ হয়ে গেছে জিম্বাবুয়ের। তাছাড়া সেপ্টেম্বরে বাংলাদেশের মাটিতে আফগানিস্তানসহ একটি ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলার কথা রয়েছে দলটির। কিন্তু সেখানে তারা অংশ নেবে কি-না তা নিয়েও তৈরি হয়েছে অনিশ্চয়তা।

ক্রিকেট বিষয়ক ওয়েবসাইট ক্রিকইনফোর কাছে শুক্রবার (১৯ জুলাই) দেওয়া সাক্ষাৎকারে রাজা জানান, ‘সত্যি কথা বলতে, আমাদের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার এভাবে শেষ হয়ে যেতে পারে, এটা বুঝতে পেরে আমরা আঘাত পেয়েছি। কেবল একজন ক্রিকেটারের নয়, পুরো দেশের ব্যাপার। এই সিদ্ধান্তটার সঙ্গে আমি সহজে মানিয়ে নিতে পারব না। আমি নিশ্চিত, বাকিরাও একই রকম অনুভব করছে। এখান থেকে আমরা কোথায় যাব? উত্তরণের কোনো উপায় আছে কি?’

‘আমাদের সদস্য পদ স্থগিত করা হয়েছে। কিন্তু কতদিনের জন্য তা জানি না। যদি দুই বছরের জন্য এটা হয়ে থাকে, তবে অনেকের ক্যারিয়ারই শেষ হয়ে যাবে।’

‘আমরা যদি বিশ্ব টি-টোয়েন্টির বাছাইপর্বে খেলতে না পারি, আমরা বাংলাদেশে ত্রিদেশীয় সিরিজেও খেলতে পারব না।’

আইসিসির ঘোষণার পর জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটাররা হতভম্ব হয়ে একে অপরের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন মুঠোফোনে আর ক্ষুদেবার্তা পাঠিয়ে। সবাই চিন্তিত হয়ে পড়েছেন নিজেদের ক্যারিয়ার নিয়ে। এমন কঠিন পরিস্থিতিতে অনেকেই বিকল্প কোনো পেশাতে জড়িয়ে যেতে পারেন, এমন আশঙ্কাই প্রকাশ করেন সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রিধারী ক্রিকেটার রাজা।

‘আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার হিসেবে আমি কোথায় যাব তা জানি না। আমরা কি ক্লাব ক্রিকেট খেলব না-কি খেলবই না? আমরা কি খেলার সরঞ্জাম পুড়িয়ে ফেলব আর চাকরিতে আবেদন করব? আমি জানি না এখন কী করতে হবে।’

Stay updated on the go with The Daily Star Android & iOS News App. Click here to download it for your device.

Grameenphone and Robi:
Type START <space> BR and send SMS it to 2222

Banglalink:
Type START <space> BR and send SMS it to 2225

পাঠকের মন্তব্য

Top