কেন অমন উদযাপন, জানালেন সাব্বির | The Daily Star Bangla
০৭:৩৩ অপরাহ্ন, ফেব্রুয়ারী ২৪, ২০১৯ / সর্বশেষ সংশোধিত: ০৭:৪৫ অপরাহ্ন, ফেব্রুয়ারী ২৪, ২০১৯

কেন অমন উদযাপন, জানালেন সাব্বির

ক্রীড়া প্রতিবেদক

দলের বিপর্যয়ে নেমেছিলেন। নিজের ক্যারিয়ারও ছিল শঙ্কায়। ওই পরিস্থিতিতে হাল ধরে হারের ব্যবধান কমিয়ে সাব্বির রহমান পান ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি। তবে তা ছাপিয়ে যায় তার উদযাপনে। হাত দিয়ে বকবক করার ভঙ্গিতে  কি বোঝাতে চেয়েছিলেন তিনি? এই প্রশ্নের সরাসরি উত্তর না দিলেও দেশে ফিরে ব্যাখ্যা দিলেন কেন করেছিলেন অমন উদযাপন। 

ডানেডিনে সিরিজের শেষ ওয়ানডেতে ৩৩১ রান তাড়ায় ৪০ রানেই ৪ উইকেট খুইয়ে বসে বাংলাদেশ। ওই অবস্থায় নেমে সাব্বির খেলেন ১১০ বলে ১০২ রানের ইনিংস। ২৪২ রান করে দল কমায় পরাজয়ের ব্যবধান। সাব্বির আলোচনায় থাকতে পারতেন এটুকুতেই।

কিন্তু এসব কিছু ছাপিয়ে যায় তার উদযাপনের ধরণে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিজের প্রথম সেঞ্চুরি পাওয়ার পর  প্রথাগত উদযাপন করার পর এক হাতে ব্যাট ধরে আরেক হাতে করলেন বকবক করার ভঙ্গি। চাইলে যার অর্থ হতে পারে দুটো, ‘কথা বলছে আমার ব্যাট’, ‘আমাকে বেশি সমালোচনা বন্ধ করো’।

ওয়ানডে সিরিজ শেষে দেশে ফেরার পর রোববার সাব্বিরকে পাওয়া গেল মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। সোমবার থেকে শুরু হতে যাওয়া ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের টি-টোয়েন্টি আসরে আবাহনী লিমিটেডের হয়ে খেলবেন তিনি।

অনুশীলনের ফাঁকে উদযাপনের ওই কারণ জানতে চাইলে কিছুটা যেন নিজেকে সংযত করেই জবাব দিলেন তিনি,  ‘আসলে প্রতিক্রিয়া কিছু না। এটা আমার প্রথম সেঞ্চুরি ছিলো তাই আবেগপ্রবণ হয় পড়েছিলাম। কাউকে ইঙ্গিত করে নয়। সেঞ্চুরিটা আমার জন্য খুব দরকার ছিলো। প্রথম সেঞ্চুরি তাই এমন হয়েছে। সবার উদযাপন একইরকম হবে না তা তো না। মানুষে মানুষে ভিন্ন হয়। এটা যেন কেউ ব্যক্তিগতভাবে না নেয়।’

নিউজিল্যান্ড সফরে গিয়েছিলেন বিশাল চাপ মাথায় নিয়ে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ কমিয়ে তাকে যেভাবে দলে নেওয়া হয়েছিল তাতে উঠেছিল প্রশ্ন। খারাপ করলে সেই প্রশ্ন আরও বড় হতে পারত। কিন্তু নিউজিল্যান্ডে ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি পেয়ে যাওয়া সাব্বির দেশে ফিরলেন ফুরফুরে মেজাজে।

নিউজিল্যান্ডে তিন ওয়ানডেতে ১৩, ৪৩ ও ১০২ রান করেন সাব্বির। এই পারফরম্যান্স তার বিশ্বকাপ স্কোয়াডে থাকাও অনেকটা নিশ্চিত করে দিয়েছে। কিন্তু সাব্বির নিজে সব ম্যাচই নাকি এখন থেকে তার জীবনের শেষ ম্যাচ ভেবে নামবেন,  ‘হয়তো আমার রাশিতেই আছে সবসময় চাপ নিয়ে খেলার। সবসময় চাপ নিয়েই খেলতে হবে। সবসময় চেষ্টা করি প্রতিটি ম্যাচকে নিজের শেষ ম্যাচ হিসেবে দেখার।’

বাইরের আর কোন বিষয় নয়। রান করায় পাওয়া আত্মবিশ্বাস এবার কাজে লাগাতে চান প্রিমিয়ার লিগেও।

Stay updated on the go with The Daily Star Android & iOS News App. Click here to download it for your device.

Grameenphone and Robi:
Type START <space> BR and send SMS it to 2222

Banglalink:
Type START <space> BR and send SMS it to 2225

পাঠকের মন্তব্য

Top