যুক্তরাষ্ট্রে তুষার ঝড়, লাখো মানুষ বিদ্যুৎহীন | The Daily Star Bangla
১২:৪৪ অপরাহ্ন, ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২১ / সর্বশেষ সংশোধিত: ১২:৫০ অপরাহ্ন, ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২১

যুক্তরাষ্ট্রে তুষার ঝড়, লাখো মানুষ বিদ্যুৎহীন

স্টার অনলাইন ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ও মধ্যাঞ্চলে বয়ে যাওয়া তুষার ঝড়ে বিপর্যস্ত সেখানকার জনজীবন। চরম ঠান্ডার মধ্যে লাখ লাখ মানুষ বিদ্যুৎহীন অবস্থায় রয়েছেন।

গতকাল সোমবার নিউইয়র্ক টাইমস’র এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, গতকাল টেক্সাস, লুসিয়ানা, আলাবামা ও নিউ মেক্সিকোরও ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া তুষার ঝড়ে সেসব রাজ্যে জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। সেখানকার মহাসড়কগুলোতে বরফ জমে দুর্ঘটনা ঘটছে।

ঝড়ের কারণে টেক্সাসের রাজধানী শহর অস্টিনের তাপমাত্রা আলাস্কার বৃহত্তম শহর অ্যাঙ্কোরেজের চেয়েও নিচে নেমে এসেছে বলে প্রতিবেদেন উল্লেখ করা হয়েছে।

দেশটির ন্যাশনাল ওয়েদার সার্ভিসের আবহাওয়াবিদ চার্লস রস সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, ‘হাউস্টনে বরফ পড়ছে। পেনসিলভেনিয়াতে বৃষ্টি হতে পারে। এমন ঘটনা আগে কবে ঘটেছে?’

গত ৩২ বছরে এই প্রথম অস্টিনে ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্র রেকর্ড করা হয়েছে এবং ৫৫ বছর পর সেখানে এক রাতে ৬ দশমিক ৪ ইঞ্চি পুরু বরফ পড়েছে।

টেক্সাসে হাজার হাজার মানুষ বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়ায় সরকারি কর্মকর্তারা জনগণকে বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন।

মন্টানা থেকে নিউ মেক্সিকো ও মিনেসোটা থেকে লুসিয়ানা পর্যন্ত ১৪টি রাজ্যে বিদ্যুৎ সরবরাহকারী সংস্থা সাউথওয়েস্ট পাওয়ার পুল তাদের গ্রাহকদের ঝড়ের কারণে বিদ্যুৎ উৎপাদন ব্যাহত হওয়ার কথা জানিয়েছে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন— বৈশ্বিক জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে আবহাওয়ার এমন বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা যাচ্ছে।

মহাসড়কগুলোতে বরফ জমে ‍দুর্ঘটনা ঘটায় টেনেসি হাইওয়ে পেট্রোল গতকাল বিকেলে এক টুইটার বার্তায় বলেছেন, ‘দয়া করে সবাই ঘরে থাকুন। বাইরের অবস্থা খুবই খারাপ!!!!… রাস্তাগুলো সব সাদা হয়ে আছে!!!!’

তুষার ঝড়ের কারণে দক্ষিণাঞ্চলের রাজ্যগুলোতে করোনা ভ্যাকসিন দেওয়ার কেন্দ্রগুলো বন্ধ রাখা হয়েছে।

গ্রামাঞ্চলের অবস্থা আরও করুণ বলেও প্রতিবেদেন জানানো হয়েছে। মিসিসিপি ডেল্টার ৪৭ বছর বয়সী এক কৃষক ও রেস্তোরাঁ মালিক স্ট্যাফোর্ড শুরডেন গণমাধ্যমকে বলেছেন, ‘এই অঞ্চলে কোনো গাছ নেই। তাই চারদিকে শুধু সাদা বরফ আর বরফ। পরিবারের ব্যবহারের কুয়াটির পানি জমে বরফ হয়ে গেছে।’

অস্টিনে বিদ্যুৎহীন এক অ্যাপার্টমেন্ট বাসিন্দা দিয়ানা গোমেজ বলেছেন, ‘এমন পরিস্থিতির মুখে কখনো পড়িনি। আমি খুবই হতাশ। ঠান্ডায় জমে যাচ্ছি। কী করবো বুঝে উঠতে পারছি না।’

Stay updated on the go with The Daily Star Android & iOS News App. Click here to download it for your device.

Grameenphone and Robi:
Type START <space> BR and send SMS it to 2222

Banglalink:
Type START <space> BR and send SMS it to 2225

পাঠকের মন্তব্য

Bangla news details pop up

Top