বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় মিথ্যাচার করছে যুক্তরাষ্ট্র: তেহরান | The Daily Star Bangla
০৬:৩৫ অপরাহ্ন, জানুয়ারী ১০, ২০২০ / সর্বশেষ সংশোধিত: ০৬:৪২ অপরাহ্ন, জানুয়ারী ১০, ২০২০

বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় মিথ্যাচার করছে যুক্তরাষ্ট্র: তেহরান

স্টার অনলাইন রিপোর্ট

ইউক্রেনের বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার ঘটনায় ইরানকে দায়ী করেছে যুক্তরাষ্ট্র। তবে যুক্তরাষ্ট্রের অভিযোগকে নাকচ করে দিয়েছে ইরান। দেশটির মুখপাত্র আলি রাবি আজ (১০ জানুয়ারি) জানিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্র তাদের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ করেছে- তা সম্পূর্ণ মিথ্যা এবং ভিত্তিহীন। এই ধরনের মিথ্যাচারের কোনো মানে হয় না।

আলি রাবি আরও জানান, আন্তর্জাতিক নিয়ম মেনেই এ ঘটনার তদন্তের কাজ চলছে। সংশ্লিষ্ট দেশের প্রতিনিধিদের নিয়ে স্বচ্ছতার সঙ্গে এই তদন্ত করা হবে।

তদন্তের জন্য ইউক্রেনের প্রতিনিধি দল ইরানে পৌঁছেছে। দুর্ঘটনায় অন্যান্য দেশের যারা নিহত হয়েছেন, তদন্তে সেসব দেশের সরকারের প্রতিনিধিরাও অংশ নিতে পারবেন বলে জানিয়েছেন ইরানের এই জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা।

যুক্তরাষ্ট্র মনস্তাত্ত্বিক যুদ্ধ শুরু করেছে

বিমান দুর্ঘটনা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র মনস্তাত্ত্বিক যুদ্ধ শুরু করেছে বলে দাবি করেছে ইরান। ইরানের মুখপাত্র আলি রাবি বলেছেন, “তারা (যুক্তরাষ্ট্র) মিথ্যা অভিযোগ করেছে। আমাদের চোখে এটি এক ধরনের জালিয়াতি। এই ধরনের মিথ্যাচারের দায় ইরান গ্রহণ করবে না।”

তিনি আরও বলেন, “যুক্তরাষ্ট্র সরকার আমাদের সঙ্গে মনস্তাত্ত্বিক যুদ্ধ শুরু করেছে। যারা জেনে-শুনে এবং অজান্তে এর সমর্থন করছেন, তারা শোকাহত পরিবারকে অপমান করছেন।”

ইরানের ক্ষেপণাস্ত্রে বিমানটি বিধ্বস্ত হয়েছে: যুক্তরাজ্য

যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্র সচিব ডমিনিক রাব বিমান দুর্ঘটনার ‘সম্পূর্ণ এবং স্বচ্ছ’ তদন্তের আহ্বান জানিয়েছেন। গোয়েন্দা প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে তিনি দাবি করেছেন, ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে বিমানটিকে ধ্বংস করা হয়েছে।

আজ এক বিবৃতিতে তিনি বলেছেন, “আমি এই ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্ত চাই। চারজন ব্রিটিশ নাগরিক এতে প্রাণ হারিয়েছেন। আমরা তাদের পরিবারের পাশে আছি।”

এই ঘটনার প্রতিক্রিয়া হিসেবে যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্র দপ্তর তাদের নাগরিকদের ইরান ভ্রমণে সতর্কতা এবং দেশটির অভ্যন্তরে বিমান চলাচলের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক মহলের কাছে সুপারিশ করেছে।

ইরান নির্দোষ কী না, তা নিশ্চিত নয়: ইউক্রেন

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি জানিয়েছেন, ইরান এই ঘটনার জন্য নিজেদের নির্দোষ দাবি করলেও, তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

তিনি বলেছেন, “আমরা এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা এবং যুক্তরাজ্য সরকারকে আহ্বান জানাচ্ছি। যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওর সঙ্গে চলমান তদন্ত নিয়ে আলোচনা করবো। আমরা সত্য জানতে চাই ও তুলে ধরতে চাই। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের কাছে সঠিক তথ্য তুলে ধরা আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের দায়িত্ব বলে মনে করি।”

ইউরোপীয় নেতাদের বৈঠক

ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে ইরানের চুক্তি রক্ষা করতে আজ বিকেলে জরুরি বৈঠক ডাকা হয়েছে। ইউক্রেনের বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় ইরানের জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া গেলে কূটনীতিক সম্পর্ক আরও জটিল হয়ে উঠবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

কানাডাকে প্রতিনিধি পাঠানোর অনুরোধ

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাইয়েদ আব্বাস মুসাভি বলেছেন, “ইসলামী প্রজাতন্ত্র ইরান সংশ্লিষ্ট দেশগুলোর বিশেষজ্ঞদের অংশগ্রহণকে স্বাগত জানায়। আমরা কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোকে তদন্তকারী প্রতিনিধি ও বিমান সম্পর্কিত তথ্য পাঠানোর অনুরোধ জানিয়েছি।”

এই কূটনীতিক আরও বলেছেন, “আন্তর্জাতিক নীতিমালা এবং আন্তর্জাতিক বেসামরিক বিমান পরিবহন সংস্থার নিয়ম মেনেই বিধ্বস্ত বিমানের তদন্তশুরু করেছে ইরান। তদন্তে অংশ নিতে যুক্তরাষ্ট্রের বোয়িং কোম্পানিকেও আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।”

তদন্তে যোগ দিচ্ছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র

আন্তর্জাতিক বিমান সংস্থার (আইসিএও) ইরানি প্রতিনিধি ফারহাদ পারভেজ বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেছেন, “ইউএস ন্যাশনাল ট্রান্সপোর্টেশন সেফটি বোর্ডকে (এনটিএসবি) বিমান দুর্ঘটনার তদন্তে অংশ নিতে আহ্বান জানিয়েছিলাম। তারা আমাদের প্রধান তদন্ত কর্মকর্তাকে প্রতিনিধি পাঠানোর কথা জানিয়েছে।”

এই প্রসঙ্গে এনটিএসবির এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, এনটিএসবি তদন্তে অংশ নিতে রাজি হয়েছে। তবে, মার্কিন নিষেধাজ্ঞার কারণে তা কতটুকু সম্ভব হবে, নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না।

বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এনজি বিমানটি যুক্তরাষ্ট্রে নির্মিত হওয়ায় আন্তর্জাতিক নিয়মে দেশটিকে তদন্তে অংশ নিতে অনুমতি দিয়েছে ইরান।

তবে, বিধ্বস্ত বিমানের ব্ল্যাক বাক্স নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান বোয়িং বা যুক্তরাষ্ট্র কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর না করার ঘোষণা দিয়েছে তারা।

উল্লেখ্য, গত ৮ জানুয়ারি সকালে তেহরানের ইমাম খোমেনি বিমানবন্দর থেকে ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের উদ্দেশে উড্ডয়নের পর বোয়িং ৭৩৭ বিমানটি বিধ্বস্ত হয়। এতে নিহত হন বিমানের সব আরোহী। বিমানটি বিধ্বস্ত হওয়ার কয়েক ঘণ্টা আগে ইরাকের মার্কিন সেনাঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় ইরান।

আরও পড়ুন:

ইউক্রেনের বিধ্বস্ত উড়োজাহাজের সব আরোহী নিহত

১৭৬ আরোহী নিয়ে ইউক্রেনের উড়োজাহাজ তেহরানে বিধ্বস্ত

Stay updated on the go with The Daily Star Android & iOS News App. Click here to download it for your device.

Grameenphone and Robi:
Type START <space> BR and send SMS it to 2222

Banglalink:
Type START <space> BR and send SMS it to 2225

পাঠকের মন্তব্য

Top