গাজায় ইসরায়েলের অবিরাম বোমা হামলা, গোলাবর্ষণ | The Daily Star Bangla
০৭:১৬ অপরাহ্ন, মে ১৪, ২০২১ / সর্বশেষ সংশোধিত: ০৭:২০ অপরাহ্ন, মে ১৪, ২০২১

গাজায় ইসরায়েলের অবিরাম বোমা হামলা, গোলাবর্ষণ

স্টার অনলাইন ডেস্ক

ফিলিস্তিনের গাজায় বোমা হামলা অব্যাহত রেখেছে ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনী আইডিএফ। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে হামলা চালানোর পর আজ ভোর থেকেও যুদ্ধজাহাজ থেকে হামলার পাশাপাশি কামান থেকে গোলাবর্ষণ করছে তারা।

আজ ইসরায়েলি সংবাদমাধ্যম জেরুজালেম পোস্ট এ তথ্য জানায়।

আলজাজিরা ও রয়টার্স জানিয়েছে, গাজায় ইসরায়েলি হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১১৯ এ পৌঁছেছে। নিহতের মধ্যে রয়েছে ৩১ শিশু ও ১৯ নারী। গত সোমবার থেকে শুরু হওয়া ইসরায়েলের এ হামলায় আরও অন্তত ৮৩০ জন ফিলিস্তিনি আহত হয়েছেন।

ইসরায়েলের নিক্ষেপ করা গোলা দায়ির আল-বালাহ ও মাগাজির পূর্বাঞ্চলের বেসামরিক মানুষের বাড়ির ওপর পড়ছে। প্রাণ বাঁচাতে ফিলিস্তিনের শত শত পরিবার গাজার উত্তরাঞ্চলে জাতিসংঘ পরিচালিত স্কুলগুলোতে আশ্রয় নিচ্ছে।

আজ ভোরে ইসরায়েলের আশকেলন শহরে রকেট হামলা চালিয়েছে ফিলিস্তিনের মুক্তিকামী সংগঠন হামাস।

ইসরায়েল জানিয়েছে, হামাসের পাল্টা হামলায় এখন পর্যন্ত এক সৈন্যসহ মোট সাত ইসরায়েলি এবং একজন ভারতীয় শ্রমিক নিহত হয়েছেন।

জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তনিও গুতারেসসহ আন্তর্জাতিক গোষ্ঠীগুলো অনতিবিলম্বে এই সহিংসতা বন্ধের আহ্বান জানালেও ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু তাতে সাড়া দেননি।

তিনি বলেছেন, ইসরায়েলে শান্তি পুনরুদ্ধারের জন্য যতদিন প্রয়োজন, ততদিন হামলা অব্যাহত থাকবে।

আইডিএফের বরাত দিয়ে জেরুজালেম পোস্ট জানায়, এখন পর্যন্ত এক হাজারের বেশি বোমা ও গোলাবর্ষণ করা হয়েছে গাজায়। ২০১৪ সালের গাজা যুদ্ধের পর এবারই সেখানে এতো বড় আকারে ভয়াবহ বোমা হামলা হচ্ছে।

গতকাল রাতে মধ্য ও দক্ষিণ ইসরায়েলে নতুন করে রকেট হামলা করে হামাস। এর জবাব হিসেবেই নতুন করে হামলা শুরু করে ইসরায়েল। হামাসকে চাপে রাখতে সীমান্তে ট্যাংক, গোলাবারুদ ও যুদ্ধবিমান মোতায়েন করে রেখেছে ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনী।

আজ ভোরে ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনীর হামলার মূল লক্ষ্যবস্তুগুলোর একটি ছিল গাজার উত্তরাঞ্চলে অবস্থিত হামাসের ভূ-গর্ভস্থ ‘মেট্রো’ টানেল। টানেলটি অস্ত্র আনা-নেওয়ার কাজে ব্যবহার করে হামাস।

এর ১৫০টি অংশ লক্ষ্য করে ১৬০টির বেশি যুদ্ধবিমান নিয়ে গতকাল রাতভর বোমা হামলা চালায় ইসরায়েলের বিমান বাহিনী। এতে টানেলের বড় একটা অংশ বিধ্বস্ত হয়ে যায়।

এর আগে গতকাল গাজার কেন্দ্রীয় ব্যাংক, অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা ভবনের মতো সরকারি স্থাপনা লক্ষ্য করে হামলা চালায় ইসরায়েল।

এ ছাড়া, হামাস কমান্ডারদের বাড়ি, গাজা শহরের সাইবার ইউনিট, পুলিশের স্থাপনাসহ বিভিন্ন স্থানে হামলা চালানো হয়। হামাসের কিছু ড্রোন ও চারটি বহুতল ভবনও ধ্বংস করে দেয় ইসরায়েলি বিমান বাহিনী।

হামাসের আরও কিছু স্থাপনা ও ঘাঁটি ধ্বংস করার জন্য এ হামলা অব্যাহত রাখা হবে বলে জানিয়েছে ইসরায়েল।

Stay updated on the go with The Daily Star Android & iOS News App. Click here to download it for your device.

Grameenphone and Robi:
Type START <space> BR and send SMS it to 2222

Banglalink:
Type START <space> BR and send SMS it to 2225

পাঠকের মন্তব্য

Top