মাঠে গড়াল ভারত-নিউজিল্যান্ড ম্যাচ | The Daily Star Bangla
০৩:২৬ অপরাহ্ন, জুলাই ১০, ২০১৯ / সর্বশেষ সংশোধিত: ০৩:৩৪ অপরাহ্ন, জুলাই ১০, ২০১৯

মাঠে গড়াল ভারত-নিউজিল্যান্ড ম্যাচ

স্পোর্টস ডেস্ক

বৃষ্টির কারণে বন্ধ হয়ে যাওয়া ভারত ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনাল ম্যাচটি রিজার্ভ ডেতে অর্থাৎ বুধবার (১০ জুলাই) ফের মাঠে গড়িয়েছে।

বৃষ্টিতে খেলা গড়ায় রিজার্ভ ডেতে

মঙ্গলবার ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্রাফোর্ডে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে ৪৬.১ ওভারে ৬ উইকেটে ২১১ রান করে নিউজিল্যান্ড। এরপরই নামে বৃষ্টি। মাঝে দু’একবার বৃষ্টির ঝাপটা কমে এলেও খেলার হওয়ার পরিস্থিতি তৈরি হয়নি।

স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬টা ৪০ মিনিটে (বাংলাদেশ সময় রাত ১১টা ৪০ মিনিট) ছিল কাট-অফ টাইম। কিন্তু ৬টা ২৫ মিনিটে ((বাংলাদেশ সময় রাত ১১টা ২৫ মিনিট)) দুই আম্পায়ার রিচার্ড কেটেলবরো আর রিচার্ড ইলিংওয়ার্থ মাঠ পর্যবেক্ষণ করে খেলা হওয়ার মতো পরিস্থিতি দেখতে পাননি। তাই ফাইনালে উঠার লড়াই রিজার্ভ ডেতে নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন তারা।

বৃষ্টি বাগড়ার আগে নিউজিল্যান্ডকে কোণঠাসা করে রেখেছিল ভারতীয় বোলাররা।  মন্থর উইকেট ও ভারতীয় বোলারদের দুর্দান্ত বোলিংয়ের বিপরীতে অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন ও অভিজ্ঞ রস টেইলর ছাড়া কেউই লড়াই করতে পারেননি।

উইলিয়ামসন তুলে নেন আসরে নিজের দ্বিতীয় হাফসেঞ্চুরি (সেঞ্চুরি রয়েছে দুটি)। ছয়টি চারের সাহায্যে করেন ৯৫ বলে ৬৭ রান। এই ইনিংস খেলার পথে চলতি আসরের ষষ্ঠ ব্যাটসম্যান হিসেবে পাঁচশো রান ছুঁয়ে ফেলেন তিনি। পয়েন্টে জাদেজার হাতে ক্যাচ বানিয়ে উইলিয়ামসনের উইকেটটি নেন যুজবেন্দ্র চাহাল।

উইলিয়ামসনের বিদায়ের পর লড়াইটা একাই চালান টেইলর। ৭৩ বলে ফিফটি তুলে নেওয়ার পর হাত খুলতে শুরু করেন তিনি। বৃষ্টিতে খেলা বন্ধ হওয়ার আগে টেইলরের রান ছিল ৮৫ বলে ৬৭। অপর প্রান্তে টম ল্যাথাম ছিলেন ৩ রানে। ইনিংসের শেষ ৬.১ ওভারে আসে ৫৬ রান।

এ ম্যাচের আগে চলতি বিশ্বকাপের আরও পাঁচটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে। সবগুলোতেই জিতেছিল প্রথমে ব্যাটিং করা দল। তবে ম্যাচগুলোতে দেখা গিয়েছিল রান উৎসব। আগে ব্যাট করে সর্বোচ্চ ৩৯৭ রান করেছিল স্বাগতিক ইংল্যান্ড, সর্বনিম্ন ২৬৮ স্কোর ভারতের। তবে এদিন খেলা হচ্ছে নতুন উইকেটে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

নিউজিল্যান্ড: ২১১/৫ (৪৬.১ ওভারে) (গাপটিল ১, নিকোলস ২৮, উইলিয়ামসন ৬৭, টেইলর ,৬৭*, নিশাম ১২, ডি গ্র্যান্ডহোম ১৬, ল্যাথাম ৩*; ভুবনেশ্বর ১/৩০, বুমরাহ ১/২৫, হার্দিক ১/৫৫, জাদেজা ১/৩৪, চাহাল ১/৬৩)।

(বৃষ্টিতে খেলা বন্ধ হওয়ার আগ পর্যন্ত)

সেমিফাইনাল বৃষ্টিতে পণ্ড হলে যা ঘটবে

বৃষ্টিতে কোনো ম্যাচ নির্দিষ্ট দিনে শেষ না করা গেলে বা মাঠে না গড়ালে রিজার্ভ ডেতে খেলা হবে। ঠিক যেখানে ম্যাচ শেষ হয়েছিল, সেখান থেকেই আবার শুরু হবে। তবে রিজার্ভ ডেতেও যদি খেলা না হয় অর্থাৎ ম্যাচ পণ্ড হয়ে যায়, তাহলে কী হবে?

সেক্ষেত্রে লিগ পর্বে যে দল পয়েন্ট তালিকার উপরে ছিল, তারা পাবে ফাইনালের পরম আকাঙ্ক্ষিত টিকিট। এই হিসাব অনুসারে, ভারত-নিউজিল্যান্ড লড়াই বৃষ্টিতে ভেসে গেলে কপাল পুড়বে কিউইদের। কারণ, লিগ পর্বে শীর্ষে ছিল ভারত। আর রান রেটে এগিয়ে থাকায় চতুর্থ হয়ে সেমিতে উঠেছিল নিউজিল্যান্ড।

Stay updated on the go with The Daily Star Android & iOS News App. Click here to download it for your device.

Grameenphone and Robi:
Type START <space> BR and send SMS it to 2222

Banglalink:
Type START <space> BR and send SMS it to 2225

পাঠকের মন্তব্য

Top